এসি সার্ভিসিং আউটডোর এসি সার্ভিসিং করার নিয়ম

এসি সার্ভিসিং করার নিয়ম গুলোর মধ্যে আজ আমরা এসির বাহির অংশ আউটডোর এসি সার্ভিসিং শিখবো। কারণ একসাথে এসির বিভিন্ন অংশ বা বিষয় আলোচনা করে বুঝিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়। এজন্য আমি এসির সার্ভিসি বিষয় গুলো ছোট ছোট অংশ করে আলোচনা করবো। আপনি যদি এসি সার্ভিসিং শিখতে চান তাহলে নিয়মিত আমার সাইট ফলো করুন এবং আমার আর্টিকেল গুলো পড়তে থাকুন। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে আউটডোর এসি সার্ভিসিং করার নিয়ম গুলো ধারাবাহিক ভাবে জেনে ফেলি। আউটডোর এসি সার্ভিসিং করার জন্য কয়েকটা ধাপে কাজ করতে হবে যেগুলো নিচে স্টেপ-বাই-স্টেপ ছবি সহকারে তুলে ধরা হয়েছে।

আউটডোর এসি খোলার নিয়ম :

নিজেই আউটডোর এসি খোলার জন্য চিত্র গুলো ভালো ভাবে দেখুন। নিচের চিত্রে কিভাবে এসি খুলবেন তার একটা স্টেপ বাই স্টেপ নকশা দেওয়া হয়েছে। যেভাবে এসির সব কাভার সাইড ঢাকানা খুলতে হবে তা চিত্রের সাহায্যে বোঝানো হয়েছে সাথে চিত্র সম্পর্কে নিচে ডেসক্রাইব করা হয়েছে। সুতরাং চিত্র এবং বিবরণ গুলো ভালো ভাবে দেখুন। যেভাবে চিত্র গুলো দেখানো হয়েছে ঠিক সেই ভাবে খোলার চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন সব এসি খোলার নিয়ম এবং সিস্টেম একই ধরণের হয়ে থাকে। তবে কিছু কিছু এসি খোলার নিয়ম অন্য হতে পারে। আউটডোর এসি খোলার সময় সাকশান পাই গ্যাস লাইন খোলার প্রয়োজন হয়না।

এসির উপরের অংশ খোলা ১ম ধাপ :

আউটডোর এসি সার্ভিসিং করার জন্য উপরের অংশ খুলতে হয়। যা স্টার স্ক্রু ডাইভার দিয়ে স্ক্রু গুলো খুলে উপরে ধাকনা খুলতে হয়। চিত্রে উপরের ঢাকনা খোলার নিয়ম দেখানো হয়েছে।

এসির উপরের অংশ খোলার নিয়ম

চিত্র: এসির উপরের অংশ খোলার নিয়ম

এসির গ্রিল অংশের স্ক্রু খোলা ২য় ধাপ :

আউটডোর এসির সাইডের গ্রিল খোলার জন্য স্টার স্ক্রু ড্রাইভার দিয়ে স্ক্রু গুলো খুলতে হবে। চিত্রে পরিস্কার ভাবে এসির সাইডের গ্রিলের স্ক্রু খোলার নিয়ম দেখানো হয়েছে।

এসির গ্রিল অংশের স্ক্রু খোলার নিয়ম

চিত্র: এসির গ্রিল অংশের স্ক্রু খোলার নিয়ম

এসির গ্রিল অংশ খোলা ৩য় ধাপ :

আউটডোর এসির স্ক্রু খোলার পর কিভবে এসি থেকে গ্রিল আলাদা করতে হয়। চিত্রে এসি থেকে গ্রিল আলাদা করার নিয়ম দেখানো হয়েছে।

এসির গ্রিল অংশ খোলার নিয়ম

চিত্র: এসির গ্রিল অংশ খোলার নিয়ম

এসির সামনের অংশের স্ক্রু খোলা ৪র্থ ধাপ :

আউটডোর এসির গ্রিল খোলার পর এসির সামনের অংশ খোলা যায়। গ্রিল খোলার পর স্ক্রু ড্রাইভার দিয়ে সামনের অংশের স্ক্রু খোলার চিত্রে দেখানো হয়েছে।

এসির সামনের অংশের স্ক্রু খোলার নিয়ম

চিত্র: এসির সামনের অংশের স্ক্রু খোলার নিয়ম

এসির সামনের অংশ খোলা ৫ম ধাপ :

আউটডোর এসির স্ক্রু খোলারপর কিভাবে সামনের অংশ আলাদা করতে হয়। চিত্রে আউটডোর এসির সামনের অংশ খোলার নিয়ম দেখানো হয়েছে।

এসির সামনের কাভার খোলার নিয়ম

চিত্র: এসির সামনের অংশ খোলার নিয়ম

আউটডোর এসির পিসিবি সংরক্ষণ :

এসির পিসিবি সার্কিট যাকে বলে এসি কন্ট্রোল সার্কিট। আউটডোর এসির পিসিবি সার্কিট দেখতে কেমন হয় তার একটি ক্যামেরা ফটো ‍তুলে দেওয়া হয়েছে যেন আপনাদের পিসিবি চিনতে কোন সমস্যা না হয়। এসি পরিস্কার করার সময় আপনাদের অতি সাবধাতার সাথে পিসিবি টি সংরক্ষণ করতে হবে। যেন তাতে কোন পানি বা লিকুইড প্রবেশ না করে।

এসি সার্ভিসিং -এসি সার্কিট

চিত্র: এসির পিসিবি সার্কিট বোর্ড

এসি পরিস্কার করার নিয়ম :

উপরের নিয়মে এসি খোলার পর ভালোভাবে এসি ওয়াশ করতে হবে কারণ এসির ভিতরে কয়েক বছরের ময়লা জমে থাকে এবং অনেক জীবানু যুক্ত হয়ে যায়। যার কারণে এসির বাতাস দূষিত হয় এবং ঠিক মত এসির কুলিং সিস্টেম কাজ করেনা। এজন্য নিয়মিত এসি সার্ভিসিং করার প্রয়োজন পড়ে। এসি সার্ভিসিং করার আগে অবশ্যই আপনাকে আগে এসির পাওয়ার লাইন আফ করে কাজ করতে হবে এবং জীবানু মুক্ত করা যায় এমন লিকুইড পানিতে মিশিয়ে দিয়ে এসি ওয়াশ করতে হবে।

এসির পরিস্কার করার লিকুইড :

আউটডোর এসির সামনের অংশ খোলারপর ভালো ভাবে জীবানু ও ময়লা মুক্ত করণ ক্লিনার দিয়ে পরিস্কার করতে হবে। পরিস্কার ক্লিনিং করার জন্য বাজারে কয়েক ধরণের লিকুইড পাওয়া যায়। যার মধ্যে একটা “কয়েল সাইন” তবে আপনার শহরে কি নামে এসব লিকুইড পাওয়া যায় সেটা আপনাকে জানতে হলে নিকটের এসি সার্ভিস টুলস্ বিক্রয়ের দোকানে গিয়ে বলতে হবে। দোকানে গিয়ে বলেন এসি ব্লুয়ার পরিস্কার লিকুইড লাগবে তখন তারা আপনাকে তা দিয়ে দিবে। তবে মনে রাখবে কখনো ভূলেও গরম পানি দিয়ে এসি ওয়াশ করা যাবে না।

উল্লেখ্য ক্লিনিং লিকুইড যা এসিডের মত কাজ করে। এসিড যেমন মাটিতে পড়লে ফুলে ওঠে তেমনী এসির ভিতরের ময়লাতে ক্লিন সাইন লিকুইড স্প্রে করলে, ময়লা স্টিল থেকে ফুলে উঠে যাবে। তবে এই লিকুইডে পরিমাণ মত পানি মিশিয়ে ব্যবহার করবেন। লিকুইড স্প্রে করার কিছুক্ষণ পর পাইবের পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। তবে পিসিবি সার্কিটে যেন পানি না পড়ে সেদিকে ভালাভাবে খেয়াল রাখতে হবে। দরকার হলে পলিথিন দিয়ে ভালো ভাবে জড়িয়ে টেপিং করে নিন।

বাজারে ভালো এসি সমূহ :

বাজারে বিভিন্ন দেশী-বিদেশী কোম্পানির এসি পাওয়া যায় তার মধ্যে কয়েকটা ভালো এসি ব্রান্ড হলো: এলজি এয়ার কন্ডিশনার, জেনারেল এসি, ডাইকিন এসি, প্যানাসনিক এয়ার কন্ডিশনার, ক্যারিয়ার এসি, ওয়ালটন এয়ার কন্ডিশনার, গ্লোব এর এসি, গ্রি এয়ার কন্ডিশনার। এই কোম্পানি গুলোর এসি ওয়োরেন্টি কালিন সময়ে সার্ভিসং ফ্রিতে পেয়ে যাবেন। তবে আপনাকে এসি সার্ভিস করার জন্য টেকনিশিয়ান কে ছোট খাটো ব্যাপারে ১,০০০-৩,০০০/- পর্যন্ত টাকা দিতে হতে পারে। আপনি যদি নিজেই এসি সার্ভিসিং শিখে নিতে পারেন তাহলে নিজের এসি নিজে সার্ভিসিং করতে পারবেন এবং সাথে অন্যের এসি সার্ভিসিং করে নিজের জন্য আয় করতে পারবেন।

বর্তমানে এসি সার্ভিসিং খরচ :

আপনার যদি একটাও এসি থাকে তাহলে মাঝে মাঝে কি পরিমাণ টাকা খরচ করতে হতে পারে হয়ত আপনার জানা নেই। আর এসি সার্ভিসিং শিখে কি পরিমাণে আয় করা যায় সেটাও হয়ত আপনার জানা নেই। যারা সার্ভিসি শিখছেন তাদের হয়তা জানা আছে। এজন্য আমি একটা সার্ভিসিং খরচ চাট নিয়ে এসেছি যা এক ঝলক দেখে নিতে পারেন তবে বাজার দর থেকে কিছুটা কমবেশি হতে পারে। আপনি নিজে আয় করার জন্য অথবা ক্যারিয়ার গঠনের জন্য এসি সার্ভিসিং শিখে এগিয়ে যেতে পারেন। যার ফিউচারে এর অনেক ভালো স্কোপ রয়েছে।

  • এসি সার্ভিসিং টেকনেশিয়ান এর মিনিমাম ফি = ৫০০ টাকা।
  • এছাড়াও উইন্ডো এসি সার্ভিসিং ফি = ৭০০ টাকা।
  • (১ টন) এসি গ্যাস রিফিল ১০০০-১৩০০ টাকা (R-22)
  • (১.৫ টন ) এসি গ্যাস রিফিল ২৫০০-৩৫০০ টাকা (R-22 )
  • (১-১.৫ টন) এসি গ্যাস রিফিল ৩৫০০-৪৫০০ টাকা (R-410A)
  • আউটডোর ইনডোর এসি মাস্টার ক্লিনিং করা ৩০০০ টাকা।
  • টোটাল এসি ফিটিং বারান্দা ২০০০ টাকা।
  • দেওয়ালে ঝোলানো এসি ফিটিং ২৫০০ টাকা।
  • যেকোন এসি খোলা ১০০০ টাকা।
  • অন্যান্য গ্যাস রিফিল ফি আলাদা রয়েছে।

ইনডোর এসি সার্ভিসিং

আউটডোর এসি সার্ভিসিং সম্পর্কে কোন বিষয় জানার থাকলে নিচে আমাকে কমেন্ট করুন। এর পরে আমরা ইনডোর এসি ঘরের ভিতরের আংশ সার্ভিসিং করার নিয়ম জানবো। তবে আপনাদের কমেন্ট এর উপর নির্ভর করবে কি ইনডোর সার্ভিসিং আর্টিকেল বিষয়টা। আর লিখাটি ভালো লাগলে লাইক কমেন্ট এবং শেয়ার করুন।

Leave a Reply

error: Content is protected !!