লাইট ইমিটিং ডায়োড এলইডি কি

লাইট ইমিটিং ডায়োড এলইডি কি ও এর কাজ

আজ আমরা জানবো লাইট ইমিটিং ডায়োড কি কাকে বলে কিভাবে কাজ করে। এর আগে আমরা বেশ কয়েক রকম ডায়োড সম্পর্কে জেনেছি। তার মধ্যে লাইট ইমিটিং ডায়োড বিশেষ এক ধরনের ডায়োড বা এলইডি, যেটা বর্তমানে প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ‍ডিভাইস এবং অন্ধকার দূরীকরণ ও আলো তৈরীর কাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। লাইট ইমিটিং ডায়োডকে সংক্ষেপে এলইডি বলা হয়। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে লাইট ইমিটিং ডায়োড সম্পর্কে আরো একটু ভালো ভাবে জানি।

এলডিআর সম্পর্কে জানুন

লাইট ইমিটিং ডায়োড কি :

এলইডি কথার পূর্ণ রূপ হলো লাইট ইমিটিং ডায়োড, যাকে সংক্ষেপে L.E.D বলা হয়। বর্তমানে যেকোন ধরণের অন্ধকার দূরীকরণের কাজে এবং সকল ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে যেমন- টিভি, মনিটর, মোবাইলের ডিসপ্লে, বাল্ব ইত্যাদির মত বিভিন্ন ধরণের কাজে লাইট ইমিটিং ডায়োড বা এলইডি ব্যবহার করা হয়। L.E.D এর ব্যবহার দিনে দিনে এত বেশি হওয়ার কারণ হলো অনেক কম মূল্যে পাওয়া যায়, অনেক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হিসাবে কাজ করে এবং সহজে ব্যবহার যোগ্য।

চিত্র: লাইট ইমিটিং ডায়োডের সংকেত

লাইট ইমিটিং ডায়োড কাকে বলে :

যে ডায়োডকে ফর্রওয়াড বায়াসে রেখে ইনপুটে উপযুক্ত পরিমাণে ভোল্টেজ প্রদান করলে তার মধ্যে থেকে আলো নির্গত হতে থাকে তাকে লাইট ইমিটিং ডায়োড বা এলইডি বলে।



চিত্র: লাইট ইমিটিং ডায়োড বা এলইডি

লাইট ইমিটিং ডায়োড এর কাজ :

বর্তমানে লাইট ইমিটিং ডায়োডকে ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের এর আলো বলতে পারেন। কারণ প্রায় প্রতিটা ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে লাইট ইমিটিং ডায়োড ব্যবহার করা হয় আলোর জন্য। এলইডি বা লাইট ইমিটিং ডায়োড খুব কম ভোল্টে চলতে সক্ষম, 1.5 থেকে 3.7 ভোল্টে এগুলো খুব ভালো কাজ করে, বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এবং এতে সাদা সহ অনেক ধরণের আলো পাওয়া যায়। যেমন- লাল, সবুজ, নীল, হলুদ ইত্যাদি। দামে সস্তা এবং সহজে পাওয়া যায় বলে ব্যাপক হারে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস ও সার্কিটে লাইট ইমিটিং ডায়োড ব্যবহার করা হয়।

ডায়োড সম্পর্কে আরো জানুন

আশা করছি লাইট ইমিটিং ডায়োড সম্পর্কে অনেকেই জানেন। কারণ আপনাদের বাড়িতে নিত্যদিনের ব্যবহৃত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে ব্যবহার করা হয়েছে। এজন্য লাইট ইমিটিং ডায়োড সম্পর্কে অনেকের অনেক ধারণা আছে। কারণ আপনারা আসে পাশে দেখলে- দেখতে পাবেন প্রচুর পরিমাণে ইলেকট্রনিক্স যন্ত্র আছে যেগুলো লাইট ইমিটিং ডায়োড ব্যবহার করে তৈরী করা হয়েছে। তাই আর বেশি কিছু বলার প্রয়োজন মনে করছিনা। লিখাটি ভালো লাগলে লাইক ও শেয়ার করুন কোন কিছু জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করুন।

Leave a Reply

DMCA.com Protection Status