নতুন প্রকাশিত
Home / Laptop Tablet / ল্যাপটপের সমস্যা ও সমাধান | ল্যাপটপ এর কমন সমস্যা
ল্যাপটপের সমস্যা ও সমাধান

ল্যাপটপের সমস্যা ও সমাধান | ল্যাপটপ এর কমন সমস্যা

ল্যাপটপের সমস্যা ও সমাধান গুলো সম্পর্কে আজ আমরা জানবো কারণ প্রতিনিয়ত আমাদের ল্যাপটপ নিয়ে বিভিন্ন সমস্যায় পড়তে হয়। যদিও এই বেসিক ল্যাপটপের সমস্যা ও সমাধান গুলো জেনে কাজ করতে না পারলেও বুঝতে পারবেন কোথায় সমস্যা হতে পারে। তবে আজকের প্রতিটা বিষয় নিয়ে বিস্তারিত ভাবে আলাদা আলাদ আর্টিকেল পাবলিশ করা হবে। যেন বিস্তারিত জেনে পরবর্তীতে নিজের ল্যাপটপ নিজেই ঠিক করতে পারেন। তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে ল্যাপটপের বেসিক সমস্যা এবং তার সমাধান গুলো জেনেনি।

সূচীপত্র

ল্যাপটপ এর কমন সমস্যা ও তার সমাধান :

নিচে ল্যাপটপের কমন সমস্যা গুলো সম্পর্কে এবং ও তার সামাধান গুলো সম্পর্কে প্রাথমিক সমাধানের উপায় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। তাহলে চলুন ল্যাপটপের সাধারণত কমন কি সমস্যা গুলো হয়ে থাকে তা জেনেনি। ল্যাপটপের সমস্যা ও সমাধান

ল্যাপটপের স্ক্রিন সমস্যা ?

ল্যাপটপ এর ডিসপ্লে সাদা ?

ল্যাপটপ চালু হচ্ছে না :

সবার আগে আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে কি কারণে ল্যাপটপ চালু হচ্ছে না। আপনার ল্যাপটপ যদি হঠাৎ চালু না হয় তাহলে আপনি যা করতে পারেন প্রথমে ল্যাপটপকে ভালো ভাবে চার্জ করতে হবে। যদি চার্জ ঠিক থাকে তাহলে দেখুন ডিসপ্লে আসছে কি-না। ডিসপ্লেতে কোন লিখা আসছে কি-না তা দেখতে হবে। কোন লিখা আসলে উইন্ডোজ জনিত বা হার্ডডিক্স জনিত সমস্যা থাকতে পারে। আর যদি ডিসপ্লে না আসে পাওয়ার ফ্যান, পাওয়ার লাইট জ্বলে তাহলে বুঝতে হবে র‌্যামের সমস্যা রয়েছে সেক্ষেত্রে র‌্যামটি পরিস্কার করে দেখতে হবে। খারাপ থাকলে পরিবর্তন করতে হবে তাহলে ল্যাপটপ চালু হয়ে যাবে। যদি না চালু হয় তাহলে ব্যাটারী পরিবর্তন করে।

ল্যাপটপের ডিসপ্লে আসছে না :

ল্যাপটপ চালু করার পর যদি ডিসপ্লে না আসে তাহলে এ সমস্যাটা বিভিন্ন কারণে হতে পারে। যদি ল্যাপটপ অন করার পর বায়োসের স্ক্রীণ আসে বা ডিসপ্লেতে কোন লিখা আসে তাহলে বুঝতে হবে স্ক্রিন এবং ডিসপ্লে কানেকশন ঠিক আছে। অপারেটিং সিস্টেমের সমস্যার কারণে এমন হয়ে থাকে। তবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে র‌্যামের সমস্যার কারণে ডিসপ্লে আসে না। আবার ল্যাপটপের ডিসপ্লে খারাপ হলেও এ সমস্যা হতে পারে। তবে ল্যাপটপের ব্যাটারী খুলে আবার লাগিয়ে দেখতে পারেন। আর একদমই মনিটর কালো হয়ে থাকলে ঠিক রির্স্টাট দিয়ে ব্যাটারী খুলে র‌্যাম খুলে পরিস্কার করেও ডিসপ্লে না আসলে সেটা ল্যাপটপ সার্ভিস সেন্টারে নিতে যেতে হবে।

ল্যাপটপ বাটারী ব্যাকআপ কম দিচ্ছে :

আপনার ল্যাপটপটি যদি ভালো ব্রান্ডের না হয়ে থাকে তাহলে ল্যাপটপ কেনার কিছুদিন পর থেকেই এই ব্যাকআপ টাইম কমতে থাকবে। এখানে আসলে করার কিছু নেই। এজন্য কেনার সময়ই ভালো ব্রান্ডের জিনিস বেছে নিন। আর ল্যাপটপ যখন চার্জ দিবেন তখন টানা চার্জ দিবেন। বারবার চার্জ থেকে এটিকে খুলবেন না। এতে ব্যাটারির আয়ু কমে যায়। ব্যাটারি দিয়ে ব্যবহার করলে চার্জ যখন একেবারে শেষের দিকে চলে আসবে তখন আবার নতুন করে চার্জ দিবেন তার আগে নয়। অনেক সময় সিস্টেমের কারণে অথবা মাদারবোর্ড শর্ট বা পাওয়ারের কোন কিছু শর্ট হয়ে থাকলে চার্জ অটোমেটিক কমে যায়।

ল্যাপটপের বাটারী ব্যাকআপ বাড়ানোর উপায় :

বর্তমানে সময়ের আপডেটের সাথে সাথে সব মডেলের ল্যাপটপই 5 থেকে শুরু করে 10 ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাকআপ দিতে সক্ষম হচ্ছে। তবে ভালো ব্যান্ড এর ভালো ল্যাপটপ গুলো একটু ব্যকআপ সার্ভিস ভালো দিয়ে থাকে। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় ল্যাপটপ কোম্পানী যে কনফিগারেশন বলে মার্কেটে সেল করে তার কোন ঠিক থাকে না। অর্থাৎ ব্যাকআপ টাইম যতটা বলে আপনাকে ল্যাপটপ দেওয়া হবে ঠিক ততোটা ব্যাকআপ পাবেন না। এজন্য আপনি ল্যাপটপের টিভিউ দেখে কিনবেন। কিভাবে আপনার ল্যাপটপের ব্যাটারি ব্যাকআপ আরেকটু বেশিক্ষণ রাখতে পারেন তার কয়েকটি উপায় হচ্ছে-

আপডেট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার :

অপারেটিং সিস্টেম সব সময় আপডেট ব্যবহার করতে হবে। আপনি যে অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করছেন অনেক সময় তার উপরও ব্যাকআপ টাইম নির্ভর করে। আপনার ল্যাপটপ যদি অনেক পুরানো মডেল কনফিগারেশনের হয়ে থাকে তাহলে তার সাথে সমঞ্জস্য রেখে উইন্ডোজ ব্যবহার করতে হবে। যেমন উইন্ডোজ এক্সপি, ভিসতা, সেভেন, টেন, লিনাক্স ইত্যাদি ব্যবহার করলে ল্যাপটপের কনফিগারেশনের উপর নির্ভর করে ব্যবহার করলে ল্যাপটপের ব্যাকআপ ভালো দিয়ে থাকে।

ল্যাপটপের সিস্টেম সেটিং :

অপারেটিং সিস্টেম এর কন্ট্রোল প্যানেলের পাওয়ার সেটিং এর ভেতরে আপনি সিস্টেম সেটিং  সংক্রান্ত সব কিছুই একই জাইগাতে পাবেন। আপনি যদি ব্যাটারি দিয়ে চালানোর সময় এটাকে পাওয়ার সেভার মোডে সিলেক্ট করে রাখেন তাহলে ব্যাকআপ বেশি দিবে। ল্যাপটপের ডিসপ্লের ব্রাইটনেস কখনোই 50-60% এর বেশি ব্যবহার করবেন না। ল্যাপটপে কাজ করার সময়ে একই সাথে ভিডিও দেখা বা গান শোনা নেট ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। ব্যবহার করতে পারেন তবে ল্যাপটপ অনেক গরম হবে এবং অনেক ব্যাকআপ কমে যাবে। এজন্য দরকার হলে ‍কুলিং কাভার ব্যবহার করতে পারেন।

শেয়ারিং নেটওয়ার্কিং ইন্টারনেট ব্যবহার :

নেটওয়ার্কিং এন্ড শেয়ারিং সেন্টারে গিয়ে ওয়ারলেস নেটওয়ার্ক কানেকশন বা ওয়াই-ফাই ডিজাবেল করে রাখতে হবে। ল্যাপটপে ব্লুটুথ ফাংশন প্রয়োজন ছাড়া অন করা যাবে না। অন করে রাখলে ব্যাকআপ কমে যাবে। মোডেমের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করলে ল্যাপটপের নেটওয়ার্কি বিভাগে অনেক লোড পড়ে ফলে ল্যাপটপের চার্জ তাড়াতাড়ি কমতে থাকে এজন্য প্রয়োজন ছাড়া নেট কানেকশন দিয়ে রাখাবেন না।

ল্যাপটপ পাওয়ার অন হচ্ছে না :

ল্যাপটপ কম্পিউটারে যদি পাওয়ার না পায় তাহলে বুঝতে হবে এটা হয়ত ব্যাটারী সমস্যা অথবা এডাপ্টারের সমস্যা। যার কারণে ল্যাপ টপে চার্জ হচ্ছে না বা চার্জ থাকছে না। আপনার ল্যাপটপের কারেন্টের সকেট এবং এডাপ্টার ঠিক আছে কি-না পরীক্ষা করুন। সব ঠিক থাকার পরও যদি ল্যাপটপ চার্জ না হয়। তাহলে সেটা ল্যাপটপের পাওয়ারের সমস্যা হতে পারে। এক্ষেত্রে আপনি ল্যাপটপ সার্ভিসিং সেন্টারে কোন অভিজ্ঞ টেকনিশিয়ানের সহায়তা নিন হবে।

ল্যাপটপ অতিরিক্ত গরম হলে কি করব :

চার্জ রত অবস্থায় ল্যাপটপ ব্যবহার করলে সাধারণত বেশি গরম হয়। ল্যাপটপ কম্পিউটারের নিচের অংশ যে স্থানে বেশি গরম হয়। সেখানে সম্ভব হলে কুলিং ফ্যান কুলার কাভার পাওয়া যায় সেটা ব্যবহার করতে হবে। সবচেয়ে ভালো হয় যদি ল্যাপটপ কুলার স্থায়ী ভাবে ব্যবহার করতে পারেন। তাহলে সহজে ভিতরের গরম বের হয়ে যাবে। আর ল্যাপটপের কুলিং ফ্যানের এক দম সামনে ঘিরে কিছু রাখবেন না যাতে বাতাস যাওয়া আসাতে বাধা গ্রস্থ হয়। ল্যাপটের আশে পাশে অন্য কোনো বৈদ্যুতিক যন্ত্রাদি না রাখাই ভালো। আর ল্যাটপট সব সময় ঠান্ডা স্থানে ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন গরম স্থানে রাখবেন না। সিস্টেম থেকে ল্যাপটপের ম্যাক্সসিমাম তাপমাত্র দেখে নিতে হবে।

ল্যাপটপে অপারেটিং সিস্টেম লোড হচ্ছে না :

কম্পিউটারে ল্যাপটপে অপারেটিং সিস্টেম লোড না হলে সিস্টেম রিপেয়ারের চেষ্টা করে ঠিক করতে হবে। দরকার হলে উইন্ডোজ অপারেটিং সিডি দিয়ে সিস্টেম রিপোয়ার করতে হবে। এজন্য উইন্ডোজ অপারেটিং সেটাপের সিডি ঢুকিয়ে রিপেয়ার আপশন সিলেক্ট করে কন্টিনিউ করতে হবে। অথবা কম্পিউটার রিস্টার্ট করে উইন্ডোজ সেফ মোডে অন করে দেখতে হবে। যদি এতেও সমস্যার সমাধান না হয় তাহলে উইন্ডোজ নতুন করে সেটআপ করতে হবে। এজন্য বাজারের আপডেট উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ডিডি ব্যবহার করবেন।

ল্যাপটপে হাইডেফিনেশন ভিডিও চলছে না :

বর্তমানে অনেকেই ল্যাপটপের পাশাপাশি নেটবুক ব্যবহার করছেন। নেটবুক ছোটো সাইজ বেশি দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি ব্যাকআপ এর জন্য তৈরী করা হয়েছে। নেটবুক গুলো মূলত লো-এন্ড কম্পিউটিং অফিস প্রোগ্রাম চালাবার উপযোগী করে নির্মাণ করা হয়ে থাকে। কিন্তু এর লো কনফিগারেশনের কারণে হাই ডেফিনেশন মানের ভিডিওই ঠিমতো চলেনা। কিন্তু একই দামের কম্পিউটারে হাইডেফিনেশন ভিডিও চালানো যায়। এই সমস্যার সমাধান হলো সহজ দুইটা প্লেয়ার ব্যবহার করে নেটবুকে ৭২০ পি বা ১০৮০ পি ভিডিও চালাতে পারেন। যেমন – মিডিয়া প্লেয়ার ক্লাসিক এবং ভিএলসি প্লেয়ার। এছাড়াও বর্তমানে আরো অনেক প্লেয়ার রেব করছে বিভিন্ন কোম্পানি সেগুলো ব্যাবহার করতে পারেন।

মিডিয়া প্লেয়ার ক্লাসিক, ভিএলসি প্লেয়ার:

আপনার সিস্টেমে সাধারণ উপায়ে মিডিয়া প্লেয়ার ক্লাসিক ইন্সটল করে নিতে হবে। যদি কেলাইট কোডেক প্যাক ইন্সটল করা থাকে তাতেও হবে। এবারে আপনাকে ভিএলসি প্লেয়ার দিয়ে ভিডিও ডিকোডার ইন্সটল করে ডিফল্টভাবে তাতে ভিডিও প্লে করতে হবে।

ল্যাপটপ পাওয়ার আসে না :

আপনার ল্যাপটপে যদি পাওয়ার না আসে তাহলে প্রথমে ল্যাপটপ ভালোভাবে চার্জ করুন তারপর অন করুন পাওয়ার ইন্ডিকেটর জলছে কি-না দেখুন। দরকার হলে ব্যাটারী একবার খুলে অন্য ব্যাটারী লাগিয়ে দেখুন। তারপর দরকার হলে চার্জার এ্যাডাপ্টার পরিক্ষা করুন। এভাবে সমস্যা সনাক্ত করুন দিয়ে সমাধান করুন তাহলে পাওয়ার অন হবে।

ল্যাপটপে ভাইরাস ঢুকলে কি করবেন :

আপনার ল্যাপটপে যদি এন্ট্রি ভাইরাস যদি না থাকে তাহলে যেদিনি হোক ভাইরাস আক্রান্ত্র হবে, ল্যাপটপে ভাইরাস ঢুকবেই। এজন্য একটি পেইড এন্টিভাইরাস ব্যবহার করুন। ফ্রি এর মধ্যে অনলাইন আপডেট অ্যাভাস্ট এন্টিভাইরাস ব্যবহার করতে পারেন। যদি ভাইরাস ঢুকেই যায় তাহলে একটি পেইড এন্ট্রিভাইরাস ইনস্টল করে ল্যাপটপের ফুল সিস্টেম স্ক্যান করে ভাইরাস ডিলিট করতে হবে। অথবা নতুন করে উইন্ডোজ দিয়ে নতুন ভাবে এন্ট্রিভাইরাস দিয়ে ফুল হার্ডডিস্ক স্ক্যান করতে হবে তাহলে ভাইরাস মুক্ত হবে।

ল্যাপটপ হ্যাংক হলে কি করবেন :

আপনার ল্যাপটপ বার বার হ্যাংক হলে খুঁজতে হবে কি কারণে হ্যাংক করছে। যেমন- ল্যাপটপের কনফিগারেশনের চেয়ে হয়ত প্রোগ্রাম বেশি ভারি। এজন্য আপনাকে সিস্টেম প্রোপার্টিজ চেক করতে হবে। যে কোথায় কত র‌্যাম, প্রসেসর ব্যবহার হচ্ছে। ল্যাপটপের কনফিগারেশন অনুযায়ী সিস্টেম এবং প্রোগ্রাম ব্যবহার করতে হবে। তাহলে ল্যাপটপ হ্যাংক  করবে না। অব্যবহৃত সফ্টওয়্যার সিপ্যানেল থেকে রিমুভ করতে হবে।

ল্যাপটপ অন হচ্ছে না :

আপনার ল্যাপটপে যদি অন না হয় তাহলে প্রথমে ল্যাপটপ ভালো ভাবে চার্জ করতে হবে। তারপর অন করতে হবে। দেখতে হবে পাওয়ার ইন্ডিকেটর জলছে কি-না। দরকার হলে ব্যাটারী একবার খুলে অন্য ব্যাটারী লাগিয়ে দেখুন। সম্ভব হলে চার্জার এ্যাডাপ্টার পরিক্ষা করুন। এভাবে সমস্যা সনাক্ত করুন দিয়ে সমাধান করুন তাহলে ল্যাপটপ অন হয়ে যাবে।

ল্যাপটপে চার্জ হচ্ছে না :

আপনার ল্যাপটপে যদি চার্জ না হয় তাহলে প্রথমে চার্জার পরিক্ষার বা পরিবর্তন করে চার্জ দিয়ে দেখুন। তারপরেও যদি চার্জ না হয় তাহলে ল্যাপটপের চার্জিং পোর্ট দেখতে হবে। তারপর ব্যাটরী পরিবর্তন করে দেখতে হবে। এর পরেও যদি চার্জ না হয় তাহলে বুঝতে হবে ল্যাপটপের ভিতরের সার্কিটে সমস্যা হয়েছে। এমতবস্তায় দরকার হলে একবার সার্ভিসিং সেন্টারে নিয়ে যেতে হবে।

ল্যাপটপের ব্যাটারী সমস্যা :

আপনার ল্যাপটপে যদি চার্জ না হয়, চার্জ বেশিক্ষণ চার্জ না থাকে, ব্যাটারীর অ্যাম্পিয়ার কমে যায়, ল্যাপটপ বার বার বন্ধ হয়ে যায়, তাহলে বুঝতে হবে ল্যাপটপের ব্যাটারী সমস্যা হয়েছে তখন ব্যাটারী পরিবর্তন করতে হবে। কারণ ল্যাপটপের ব্যাটারী ঠিক হওয়ার সম্ভবনা থাকে না। বাজারে ল্যাপটপের ব্যাটারী 1500-300 টাকা নিতে পারে। তবে কোয়ালিটির উপর ব্যাটারীর দাম নির্ভার করবে। 

ল্যাপটপ মেরামত :

আজ আমরা ল্যাপটপের বিভিন্ন সমস্যার বেসিক দিকগুলো আলোচনা করলাম। এরপর ধরাবাহিক ভাবে এসব দিক গুলোর প্রতিটা সমস্যা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। ল্যাপটপের যাবতীয় সমস্যার ও তার সমাধান এই সাইটে পাবলিশ করা হবে। সুতরাং ল্যাপটাপ মেরামত শিখতে চাইলে বা নিজের ল্যাপটপের সমস্যা সমাধান করতে চাইলে নিয়মিত এই সাইটে ভিজিট করুন।

পিসি কম্পিউটার সার্ভিসিং

আজ আমরা ল্যাপটপের সমস্যা ও সমাধান বেসিক ধারণা নিলাম। যেগুলো সম্পর্কে আলাদা আলাদ আর্টিকেলে বিস্তারিত বর্ণনা করা হবে। যেন আপনি নিজেই প্রতিটা ল্যাপটপ সমস্যার সমাধান করতে পারেন। বেসিক বিষয় গুলোর মধ্যে আপনারা কোন বিষয়টা আগে জানতে চান নিচে কমেন্ট করুন। কারণ এর পরের আটির্কেলটি আপনাদের কমেন্টের উপর নির্মিত হবে। লিখাটি ভালো লাগলে লাইক কমেন্ট এবং শেয়ার করুন।

About admin

রিপেয়ারিং নিয়ে আপনার পছন্দের বিষয় কি? কোন বিষয়ে আপনি আর্টিকেল চান? কনটেক্ট পেইজে আপনার পছন্দের বিষয় লিখে সেন্ড করুন, আর সার্ভিসিং জনিত সমস্যা থাকলে গ্ররুপে জয়েন্ট করে প্রশ্ন করুন।

Check Also

কোন ল্যাপটপ কিনবেন, ভালো ল্যাপটপ চেনার উপায়

কোন ল্যাপটপ কিনবেন? ভালো ল্যাপটপ চেনার ১৪টি উপায়

কোন ল্যাপটপ কিনবেন? মনে রাখতে হবে ল্যাপটপ হলো বহন যোগ্য একটা কম্পিউটার। আর এই কম্পিউটার …

32 comments

  1. পারভিন খতুন

    হায়! পোস্ট টা অনেক ভালো হয়েছে তবে প্রতিটা বিষয় বিস্তারিত ভাবে বর্ণনা করলে ভালো হবে।

    • ল্যাপটপের প্রতিটা বিষয় নিয়ে নিয়মিত পোস্ট করা হবে ধন্যবাদ।

  2. স্যার ল্যাপটপের বিভিন্ন সমস্যা গুলো নিয়মিত জানালে উপকৃত হতাম।

  3. ল্যাপটপ নিয়ে নিয়মিত পোস্ট দিলে ভালো হবে

  4. আমার ল্যাপটপ চার্জ এ লাগালে অ্যাডপটার এর লাইট বন্ধ হয়ে যায়। কি সমস্যা?

    • প্রথমে চার্জার পরিবর্তন করে দেখুন লাইট বন্ধ হয় কি-না, যদি বন্ধ হয়। তাহলে ব্যাটারী পরিবর্তন করে চার্জ দিয়ে দেখুন, ব্যাটারী ও চার্জার ঠিক থাকার পরও যদি লাইট বন্ধ হয়। তাহলে আপনার ল্যাপটপের মাদারবোর্ডর পাওয়ার সেকশসনে সমস্যা থাকতে পারে। যেমন- কোন কিছু শর্ট থাকতে পারে। তার মধ্যে ব্যাটারী সার্কিট শর্ট হতে পারে, ল্যাপটপের মাদারবোর্ডর সার্কিট অথবা চার্জিং পোর্ট সমস্যা হতে পারে। এগুলো একের পর এক পরিক্ষা করে দেখতে হবে।

  5. রাজু, চট্টগ্রাম

    আমার এসার ব্র্যান্ডের ১৪” নতুন ল্যাপটপে অন করার পর ডিসপ্লে বার বার আসা যাওয়া করে। ডিসপ্লের কোন নির্দিষ্ট জায়গায় চেপে ধরলে চলে আবার ছেড়ে দিলে ডিসপ্লে চলে যায়। মনিটরের সাথে লাগালে একদম ক্লিয়ার দেখা যায়। ডিসপ্লে চেঞ্জ করতে খরচ বেশী। আবার কোন এক কারণে ওয়ারেন্টিতে ও পাঠাতে পারছি না। ঠিকভাবে চালানোর কোন উপায় আছে ভাইয়া?

    • আপনার ল্যাপটপের ডিসপ্লের সাথে মাদাবোর্ড সংযোগ রিবনও্য়্যার লুজ কানেক্ট হচ্ছে। অর্থাৎ ডিসপ্লে রিবোন সমস্যা হতে পারে। আপনি যদি পারেন তাহলে ল্যাপটপের পেছনের কাভার খুলে ডিসপ্লে রিবোন সংযোগ খুলে আবার ভালো ভাবে লাগিয়ে দিলে সমস্যার সমাধান হতে পারে। বেশির ভাগ সময় এমন হয় ল্যাপটপ বার বার ভাজ করার জন্য এবং ভিজিএ জনিত সমস্যার জন্য।

  6. “BOOTMGR is missing” স্ক্রিনে এটা দেখানোর কারণ কি?

    • আপনার উইন্ডোজ ইনস্টল সিডি দিয়ে কম্পিউটার পুনরায় চালু করুন এবং সিডি থেকে বুট করুন। আপনার ভাষা, সময় এবং কীবোর্ড পদ্ধতি নির্বাচন করার পরে আপনার কম্পিউটারটি মেরামত করতে ক্লিক করুন। তারপরে চালিয়ে যাওয়ার জন্য সিস্টেম পুনরুদ্ধার বিকল্প উইন্ডোটির নীচে স্টার্টআপ মেরামত চয়ন করুন। আমাদের গ্রুপে ক্রিনশর্ট দিন।

  7. ইফতেখার

    আমার ল্যপটপে পাওয়ার আসে,কিছুক্ষন অন থাকার পর অফ হয়ে যায়। অফ হওয়ার পর আর অন হয় না,চার্জ দিলে চার্জ নেয় না আবার কয়েকঘন্টা পরে অন হয়,চার্জ হয়। কিছুক্ষণ পর আবার অফ হয়ে যায়। কি সমস্যা হতে পারে?

    • ওভার হিটিং হওয়ার কারণে এমন সব সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে যেমন- কুলিং সমস্যা, প্রসেসর অতিরিক্ত গরম ইত্যাদি। তাবে আবার ল্যাপটপের এমন সমস্যা অনেক কারণে হতে পারে তাই না দেখে সঠিক উওর দেওয়া সম্ভাব নয়। আপনি সবার আগে দেখুন ল্যাপটপ বেশি গরম হচ্ছে কি-না।

  8. আমার hp লেপটপ আরেকজনের কাছে দিছিলাম এখন অন হয় না। খুলে দেখি ভিতরে ফ্যান নাই। ফ্যান ছাড়া কি অন হয় না। এক মেকানিক জিজ্ঞেস করলাম বলল পাওয়ার সাপ্লাই সমস্যা। ফ্যান আর পাওয়ারসাপ্লাই কি এক? ফ্যান ছাড়া কি লেপটপ অন হয় না নাকি অন্য কোনো সমস্যা

    • ফ্যান না থাকলেও ল্যাপটপ কিছুক্ষণ অন থাকবে তারপর ওভার হিটিং এর কারণে বন্ধ হয়ে যাবে। আপনার পিসির পাওয়ার জনিত সমস্যা হতে পারে ফ্যান বন্ধ থাকলে ঠিক করে নিন

  9. আমার ল্যাপটপ অন হচ্ছে। কিন্ত অন হয়ার পর ব্রান্ডের নাম আসার পর থেকেই তা স্থির হয়ে থাকছে। আমার ল্যাপটপের ব্রান্ডঃ আসুস, প্রসেসরঃ কোর আই থ্রি, র‌্যামঃ ৮জিবি

    • ল্যাপটপের হার্ডডিস্ক বুট না হওয়ার জন্য এমন হচ্ছে, প্রথমে আপনার ল্যাপটপের র‌্যাম খুলে ভালো ভাবে পিন গুলো মুছে লাগিয়ে দিন। যদি ঠিক না হয়, তাহলে হার্ডডিস্ক খুলে কর্ট ও হার্ডডিস্ক পরিবর্তন করে দেখে দেখুন।

  10. মোহনা খাতুন

    আমার ল্যাপটপের ডিসপ্লেতে আলো লাফাচ্ছে কেন? কিভাবে সমাধান করতে পরি?

    • দুইটা সমস্যা থাকতে পারে ১. ব্যাটারী ও পাওয়ার এডাপ্টার এর সাপ্লাই ভোল্টেজ সমস্যা থাকতে পারে তাই দুইট আলাদ ভারে পরীক্ষা করতে হবে। ২. ডিসপ্লেতে সমস্যা থাকতে পারে যেমন ডিসপ্লে আইসি, কানেক্টর ইত্যদি।

  11. ল্যাপটপ বন্ধ করলে কিছুক্ষণ পর পুনরায় চালূ হয়ে যায় কিন্তু ব্যাটারী চার্জার লাগানো থাকলে এই সমস্যা হয় না।

    • পাওয়ার সুইচে সমস্যা হতে পারে, উইন্ডোজ সমস্যা হতে পারে, পাওয়ার সেটিং দেখা যেতে পারে, হার্ডওয়্যার জনিত সমস্যা হতে পারে

  12. ল্যাপটপ ‍Shut down করলে Shut down হয় কিন্তু পাওয়ার সুইচ অফ হয় না।

    • পাওয়ার সুইচে সমস্যা হতে পারে, পাওয়ার সেটিং কোন পরিবর্তন থাকতে পারে

  13. আমার HP 840 G1 core i5 4th generation
    diver দেয়া ছাড়া ভালোই চলে কিন্তু diver দিলে screen এর আলো OFF হয়ে যায়।
    এখন আমি কি করতে পারি।

    • মাদারবোর্ড এর অরিজিনাল ড্রাইভার দিতে হবে। আপডেট অন্য অলড্রাইভার দিলে এমন সমস্যা হতে পারে।

  14. আমার ল্যাপটপে চার্জ উঠে না,অন ও হচ্ছে না,চার্জ দিলে পাওয়ার ইন্ডিকেটর লাইট জ্বলছে না,অন হলেও সাথে সাথেই বন্ধ হয়ে যায়,কি সমস্যা???

  15. মো: সুমন ‍মিয়া

    আমার এস আর ল্যাপটপ পয়ার বাটন চাপ দিলে ল্যাপটপ চলে কিন্তু ডিস্লে আসেনা

  16. মো: সুমন ‍মিয়া

    আমার এস আর ল্যাপটপ পয়ার বাটন চাপ দিলে ল্যাপটপ চলে কিন্তু ডিস্লে আসেনা ram ঠিক আছে

  17. amer laptop a charge a na lagale on hoysse na! r open korle bettary er jaigai no battary asche ! ki kora jai? janaben plz!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

42 + = 45

error: Content is protected !!