ব্যাকলিংক তৈরি করা | ব্যাকলিংক কিভাবে করে বিস্তারিত

ব্যাকলিংক তৈরি করা র নিয়ম আজকের আর্টিকেল এর মূল বিষয়। ব্যাকলিংক কিভাবে করে, কিভাবে বেশি DA PA অথরিটি ওয়েব সাইট থেকে Backlink করতে হয় এবং Backlink কিভাবে করবেন সে বিষয়ে বিস্তারিত টিপস্ আজ জানবো। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক ব্যাকলিংক তৈরীর গোপনীয় বিষয় গুলো।

যারা ওয়েবসাইট বা ব্লগের এসইও এর জন্য ব্যাকলিংক তৈরি করবেন বা ওয়েব সাইটে বেশি ভিজিটর আনার জন্য ব্যাকলিংক তৈরী করতে চান, তারা নিজ সাইটের নিস রিলেডেড সেস্যাল মিডিয়া, ফোরাম এবং ওয়েব 2.0 সাইট গুগল থেকে কিভাবে খুঁজে বের করবেন এবং সেই সব সাইটে অ্যাকাউন্ট করে পোস্ট দিয়ে কিভাবে আপনার সাইটে লিংক নিয়ে আসবেন। উক্ত পদ্ধতিতে কিভাবে ব্যাকলিংক তৈরি করা তে পারবেন এবং কোন কোন সোস্যাল মিডিয়া থেকে Backlink করা যায় এখন আমরা বিস্তারিত জেনে নিবো। নতুন যারা Backlink কি জানেন না তাদের জন্য –

ব্যাকলিংক কি :

Backlink হলো কোন ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনার সাইটের লিংক শেয়ার করে আসা বা কোন লিখাকে সিলেক্ট করে লিংক আইকনে ক্লিক করে লিংক বসানো কে Backlink বোঝায়। যেমন- কোন ফোরামে গিয়ে আপনার ওয়েব সাইটের লিংক সহ একটা পোস্ট করলেন আর সেই লিংক এ ক্লিক দিয়ে কোন ব্যাক্তি সরাসরি আপনার ওয়েবসাইটে আসতে পারলো- সেটা হলো Backlink বা কেউ একটা পোস্টের শেষে আপনার ওয়েব সাইটের লিংক দিয়ে বলল “আরো জানতে এখানে ক্লিক করুন”, এটও হলো Backlink।

ব্যাকলিংক কিভাবে করে :

Backlink কয়েক ভাবে করা যায় তার মধ্যে সব গুলো এসইও পার্পাসে কাজে আসে না। তবে ভালো ভালো ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক করতে পারলে ভিজিটর বেশি আসে যা আপনার সাইটের জন্য অনেক ভালো। ব্যাকলিংক বিভিন্ন ধরণের হয়ে থাকে এখন আমরা জানবো ব্যাকলিংক কি কি ধরণের হয়ে থাকে নিচে আলোচনা করা হলো ।

ব্যাকলিংক দুই ধরণের হয়ে থাকে যথা-

  • নোফলো ব্যাকলিংক (Nofollow Backlink)
  • ডুফলো ব্যাকলিংক (Dofollow Backlink)

নোফলো ব্যাকলিংক কি :

Nofollow Backlink হলো এমন হলো- এমন লিংক- যে লিংক দেওয়ার সময় সার্চ ইঞ্জিন  কে বলে দেওয়া হয় তুমি লিংক কাউন্ট করবা না এটা আমার রেফারেল লিংক নয়। এটা বলার কারণ হলো যে ওয়েবসাইট আপনাকে ব্যাকলিংক দিবে তার ওয়েব সাইটের কোন কিছু লিংক প্রাপ্ত ওয়েবসাইটে যেন পাস না হয়। তখন এটাকে Nofollow Backlink বলে।

How to Creating backlink ব্যাকলিংক তৈরি করা  Nofollow Backlink Structure

Nofollow Backlink Structure

<a href=”https://emakerbd.com/seo-tips-info”rel=”nofollow”>Backlink</a>

ডুফলো ব্যাকলিংক কি :

Dofollow Backlink হলো এমন হলো এমন লিংক- যে লিংক দেওয়ার সময় সার্চ ইঞ্জিন কে বলে দেওয়া হয় যে তুমি এই লিংকটা কাউন্ট করো, আমার ওয়েবসাইট এটাকে রেফারেন্স করছে। ফলে এসইও তে এই লিংক প্রাপ্ত ওয়েবসাইট র‌্যাংক করে। এটা কে Dofollow Backlink বা রেফারেন্স লিংক বলতে পারেন। তাবে Dofollow Backlink এসইও তে অনেক কাজে আসে।

How to Creating backlink ব্যাকলিংক তৈরি করা Dofollow Backlink Structure

Dofollow Backlink Structure

<a href=”https://emakerbd.com/seo-tips-info”rel=”dofollow”>Backlink</a>

ব্যাকলিংক চেক করার নিয়ম :

লিংক চেক করার জন্য ক্রোম ব্রাউজারে লিংক চেকার এক্সটেনশন ব্যবহার করুন। অথবা লিংক এর উপর মাউস রেখে ইন্সপেক্ট করে দেখুন। তাহলে চলুন এবার জানি কত ভাবে ব্যাকলিংক করা যায়। ব্যাকলিংক বিভিন্ন ভাবে করা যায় এসইও তে শুধু মাত্র ব্যাকলিংক করে Freelancer গণ অনেক আয় করে থাকে। যাকে বলে ব্যাকলিংক সেল করে আয়। এটা অনলাইনে আর্নিং এর মধ্যে পড়ে।

অনলাইনে অনেক ওয়েবসাইট আছে যেগুলোতে আপনি একটু ট্রিক খাটিয়ে ব্যাকলিংক করতে পারেন, তা নিজের ওয়েব সাইটের জন্য অথবা লিংক সেল করে অনলাইনে আয় করার জন্য। কাজটা একবার শিখে নিলে খুব সহজেই ব্যাকলিংক করে আয় করতে পারবেন। ব্যাকলিংক বিক্রয় করার জন্য Freelancer, Fiverr, Upwork সাইটে অ্যাকাউন্ট করে আয় করা য়ায়। অনলাইনে আয়ের উপায় জানতে এখানে ক্লিক করুন

তাহলে চলুন জানি কোথায় কোথায় ফ্রিতে কিভাবে আপনি ব্যাকলিংক করতে পারেন এবং আপনার ওয়েব সাইট গুগলে র‌্যাংক করাতে পারেন তার মধ্যে হলো –

সোস্যাল মিডিয়া, ফোরাম ব্যাকলিংক যেমন-

  • Facebook
  • Twiter
  • Instagaram
  • Linkind
  • Raddit
  • Printerst
  • Youtube
  • Reddit
  • Twitter
  • Pinterest
  • Stumbleupon
  • Weheartit
  • Scoop
  • Slashdot
  • Pocket
  • Bizsugar
  • stumbleupon    
  • flipboard  
  • myspace  
  • Quara
  • Bipsonomy
  • এছাড়াও গুগলে সার্চ দিয়ে বর্তমান সালের সেরা সোস্যাল মিডিয়া, ফোরাম, ওয়েব 2.0 সাইট লিস্ট সম্পর্কে জেনে সেসব সাইটে অ্যাকাউন্ট করে লিংক করতে পারেন।

Web 2.0 সাইটের ব্যাকলিংক :

ওয়েব 2.0 সাইটের ব্যাকলিংক করতে হলে ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস, ব্লগার, ইয়াবলা ইত্যাদি অনেক ওয়েবসাইট আছে গুগলে সার্চ দিলে চলে আসবে। সেসব প্রতিটা সাইটে একটা করে আপনার নিশ রিলেটেড ব্লগ তৈরী করে সেখান থোকে এংকর করে ব্যকলিংক নেওয়া যায়। যা এসইও জন্য অনেক কাজে আসে যদি গুগল না বুঝতে পারে এটা একজনের সাইট। যদি গুগল বুঝে ফেলে যে আপনি নিজে নিজে এসব লিংক করেছেন তাহলে লিংক গুলো আপনার এসইওতে কোন কাজে আসবে না। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

এসব সাইটের ডিএ পিএ অনেক বেশি থাকে। তাই সোল্যাল মিডিয়া, ফোরাম, ওয়েব 2.0 সাইটে গিয়ে অ্যাকাউন্ট করবেন তারপর বিভিন্ন ট্রিক খাটিয়ে লিংক শেয়ার করে দিবেন তাহলে আপনার সাইটে যেমন ভিজিটর বেশি হবে তেমনি এসইও তে সাইট র‌্যাংক করবে। এজন্য আপনি অবশ্যই ভিপিএন ব্যবহার করবেন আর আলাদা আলাদা আইপি থেকে আলাদা ভাবে প্রতিটা সাইট কন্ট্রোল করবেন।

অথরিটি সাইট থেকে ব্যাকলিংক :

এসইও তে সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো অথরিটি ওয়েব সাইট থেকে ব্যাকলিংক নেওয়া। অথরিটি মানে যেসব ওয়েব সাইটের DA PA অনেক বেশি হাই, সেসব ওয়েব সাইট থেকে রেফারেল লিংক নেওয়া কে বোঝায়। বর্তমানে এটা অথরিটি ওয়েব সাইটের মালিকদের সাথে কথপথন করে অথবা টাকা দিয়ে লিংক কিনে নেওয়া হয়। আর যদি আপনার সাইটের কনটেন্ট ভালো হয় তাহলে অথরিটি ওয়েব সাইট গুলো যে দিনই হোক আপনাকে তাদের লিংক দিবে।

ব্যাকলিংক সম্পর্কে আরো জানার থাকলে আমাকে কমেন্ট করুন অথবা এই সাইটের এসইও টিপস্ ইনফো মেনুতে খোঁজ করুন। লিখাটি ভালো লাগলে লাইক কমেন্ট এবং শেয়ার করুন।

4 Comments

  1. মাসুম আলী September 27, 2019
    • admin September 28, 2019
  2. Ahadul Islam October 8, 2019

Leave a Reply

DMCA.com Protection Status
error: Content is protected !!