কোর্স কে না বলুন গুগল এবং ইউটিউব ব্যবহার শিখুন। ক্যারিয়ার গঠনের সকল ক্ষেত্রে গুগল এবং ইউটিউব সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করুন।

বর্তমান যুগ হলো তথ্য প্রযুক্তির যুগ। আর তথ্যের ভান্ডার হলো গুগল এবং ইউটিউব। পৃথিবীর এমন কোন তথ্য নেই যা গুগল এবং ইউটিউবে নাই। প্রতিটা বিষয়ের কোটি কোটি তথ্য গুগলে ইনডেক্স রয়েছে। গুগল এবং ইউটিউবে কত তথ্য আছে আর ভবিষ্যৎতে কত তথ্য যুক্ত হবে এর সঠিক তথ্য একমাত্র গুগল এবং ইউটিউব-ই দিতে পারে। সুতরাং বুঝতেই পারছেন ভবিষৎতে গুগল এবং ইউটিউবকে কিভাবে ব্যবহার করা হবে। তাই ক্যারিয়ার গঠনের প্রতিটি ক্ষেত্রে গুগল এবং ইউটিউব সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহার করুন। বর্তমানে মানুষ গুগল এবং ইউটিউব যেভাবে ব্যবহার শুরু করছে সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে আমাদের নতুন প্রজন্ম হবে গুগল এবং ইউটিউবের উপর নির্ভশীল। আজ আমি তাদের কে বলবো যারা গুগল এবং ইউটিউবকে  নিজের ক্যারিয়ার গঠনের জন্য কাজে লাগান না বা জ্ঞান অর্জনের জন্য গুগল এবং ইউটিউবের ব্যবহার করেন না, তারা গুগল এবং ইউটিউবের ব্যবহার শিখুন। কোর্স কে না বলুন গুগল এবং ইউটিউবকে নিজের ক্যারিয়ার গঠনের জন্য ব্যবহার করুন।

গুগল এবং ইউটিউব কি?

গুগল কি?: গুগল হলো বিশ্বের প্রথম সেরা সার্চ ইঞ্জিন, যার কাজ হলো কারো কাছে বা কোন ওয়েবসাইটে কি তথ্য আছে তা নিয়ে রাখা এবং কেউ গুগলে সার্চ করলে গুগলের সার্চ রেজাল্টে তা প্রদর্শন করা। সুতরাং বুঝতেই পারছেন কিভাবে গুগল কাজ করে। তবে গুগলে যে তথ্য আছে তার ৯৯% তথ্য ওয়েবসাইটের অনারের ইন করে দেওয়া তথ্য। আপনি যদি গুগলে কোন তথ্য না দেন তাহলে গুগল কখনোই আপনার সাইটের গোপন তথ্য ইনডেক্স করতে পারবেনা। বিস্তারিত আরো জানতে এখানে ক্লিক করুন।

ইউটিউব কি?: ইউটিউব হলো বিশ্বের দ্বিতীয় সার্চ ইঞ্জিন গুগলের পরের স্থানে আছে। গুগলের আরেকটি পণ্য হলো ইউটিউব। মানুষকে ভিডিও আকারে কোন কিছু শেখানোর জন্য ইউটিউব সার্চ ইঞ্জিন তৈরী করা হয়েছে। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে অপব্যবহার কারীরা ইউটিউবে অশ্লিল ভিডিও দিয়ে থাকে, এটা ইউটিউবের পলিসির বাইরে। এসব ভিডিও সম্পর্কে ইউটিউব জানতে পারলে সাথে সাথে বাদ করে দেয়। সুতরাং এ নিয়ে কোন চিন্তার কিছু নাই। শেখার পারপাশে ইউটিউব সার্চ ইঞ্জিন তৈরী করা হয়েছে।

ক্যারিয়ার গঠনে গুগল এবং ইউটিউবকে কিভাবে কাজে লাগাবেন।

  • শিক্ষা অর্জনের প্রতিটা ক্ষেত্রে গুগল এবং ইউটিউব ব্যবহার করুন।
  • কোন তথ্যের দরকার হলে আগে গুগল এবং ইউটিউবে সার্চ করুন।
  • কোন সমস্যার সমাধান পেতে গুগল এবং ইউটিউব ব্যবহার করুন।
  • যেকোন নিউজ পেতে আগে গুগল এবং ইউটিউব সার্চ করুন।
  • চাকুরী তথ্য পেতে আগে গুগল এবং ইউটিউব সার্চ করুন।
  • আবহাওয়ার খবর পেতে গুগল এবং ইউটিউব সার্চ করুন।
  • কৃষি চাষাবাদের তথ্য পেতে গুগল এবং ইউটিউব সার্চ করুন।
  • আপনি বিজ্ঞানের তথ্য চান? গুগল এবং ইউটিউব সার্চ করুন।

এছাড়াও বিভিন্ন অফিসিয়াল কোর্স করতে গেলে আগে গুগল এবং ইউটিউব সার্চ করে দেখুন। দেখবেন ইউটিউবে প্রতিটা কোর্স ফ্রিতে অনেক জন করানোর জন্য বসে আছে। এজন্য আবারো বলি ক্যারিয়ার গঠনের প্রতিটি ক্ষেত্রে গুগল এবং ইউটিউবকে কাজে লাগান।

মোটকথা আপনার জীবনে ক্যারিয়ার গঠনে যত তথ্য দরকার, যখন দরকার, যেভাবে দরকার আগে গুগলে সার্চ করুন। আপনি যদি গুগলের এ্যাডভান্স সার্চ করতে পারেন। তাহলে এমন কোন তথ্য নেই যা আপনি পাবেন না। যেকোন সালের, যেকোন তথ্য, খুব সহজেই গুগল থেকে বের করে আনতে পারবেন। এজন্য আবারো বলছি গুগলের সঠিক ব্যবহার শিখুন গুগলের এ্যাডভান্স সার্চ সম্পর্কে জানুন। এখন যদি বলেন আমি গুগলের এ্যাডভান্স কিভাবে জানবো? তাহলে এতক্ষন আমি কি নিয়ে বললাম? আপনি এ্যাডভান্স সার্চ সম্পর্কে জানতে চান? গুগলে সার্চ করুন, ইউটিউবে সার্চ করুন, দেখবেন কতজন আপানাকে শেখানোর জন্য বসে আছে। আপনার কোন প্রশ্নের উওর জানা দরকার? আপনি গুগল কে জিজ্ঞাসা করুন।

আপনি কিছু শিখতে চান? গুগল কে জিজ্ঞাসা করুন সে আপনাকে শেখার সকল পথ বলে দিবে। আশা করছি ক্যারিয়ার গঠনে গুগল এবং ইউটিউব সম্পর্কে জানতে এতটুকুই যথেষ্ঠ। বাকিটা আপনাদের ইচ্ছা আমি আপনাদের পথ দেখালাম পথে হাটা আপনাদের দায়িত্ব। এবিষয়ে কোন কিছু জানার থাকলে বা বলার থাকলে আমাকে কমেন্ট করুন।

আমার ওয়েবসাইট, ইউটিউব, ফেইসবুক পেইজ, এবং ফেইসবুক গুরুপে যুক্ত থাকুন টেকনোলজি সম্পর্কে নতুন নতুন তথ্য জানতে থাকুন। আরো জানতে নিচে দেখুন।

Leave a Reply

error: Content is protected !!