মাইকের ইউনিটে কয়েল লাগানোর নিয়ম। মাইকের ইউনিট মেরামতি সম্পর্কে বিস্তারিত গাইডলাইন।

মাইকিং করার কথা শোনেনি এমন মানুষ হয়ত নেই। কিন্তু সবাই কি জানেন মাইকিং করতে কি কি লাগে? মাইকিং করতে যা লাগে তাহলো একটা অ্যামপ্লিফায়ার আর সাথে একটা বড় মাইক। সেই মাইকের পেছনে থাকে একটা চুম্বক সমৃদ্ধ বড় কয়েল যুক্ত ম্যাগনেট, যাকে আমরা ইউনিট বলি। আজ আমরা মাইকিং করার প্রধান যন্ত্র ইউনিট সার্ভিসিং সম্পর্কে জানবো। কারণ বেশির ভাগ সময় মাইকের ইউনিটের কয়েল কেটে যায়। কিন্তু মনে রাখবেন ইউনিট কখোনো নষ্ট হয়না। আমাদের পাড়ার অনেক মসজিদ আছে যার ইউনিট গুলো মাঝে মাঝে কেটে যায়। কিন্তু আপনি কি জানেন এগুলো ঠিক করা অনেক সহজ। আপনি একটু চেষ্টা করলেই ঠিক করতে পারবেন এতে কোন রিস্ক নাই। চিত্র সহকারে আমি প্রতিটা বিষয় আপনাদের বুঝিয়ে দিয়েছি মনোযোগের সাথে পড়ুন এবং দেখুন।

প্রয়োজনীয় সার্ভিসিং টুলস্

  • স্টার স্ক্রু ড্রাইভার
  • কন্টিনিউটি টেস্টার
  • হিটার বা আয়রন
  • ইউনিটের কয়েল

মাইকের ইউনিট খোলার নিয়ম

প্রথম ধাপ: প্রথম ধাপে আপনি মাইক থেকে ইউনিট টা খুলে আলাদা করে ফেলুন, নাটের মতো প্যাচ আকারে লাগানো থাকে দুই হাত দিয়ে চেপে ধরে সাবধানতার সাথে খুলে আলাদা করে নিন চিত্রের মত করে।

দ্বিতীয় ধাপ: পরিস্কার করে একটা স্ক্রু ড্রাইভার দিয়ে ধিরে ধিরে নাট গুলো খুলে ফেলুন। তবে কিছু কিছু ইউনিট খুলতে ৬-৮ সাইজের ছোট ডাল রেঞ্জ লাগে। আপনার কাছে যদি ডাল রেঞ্জ না থাকে তাহলে প্লাস দিয়ে খুলে নিতে পারেন।

চিত্র: ১

fixing mic unit ‍stap 1

তৃতীয় ধাপ: মাইকের ইউনিট খোলার পর ভালোভাবে দেখুন কয়েলের অবস্থা। দরকার হলে কন্টিনিটি টেস্টার অথবা মাল্টিমিটার দিয়ে পরিক্ষা করে দেখতে হবে। ৯৯ ভাগ ক্ষেত্রেই কয়েল কেটে গেলে ইউনিট কাজ করেনা। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে তারের সমস্যা থাকতে পারে। লাইনের তার খুলে মাল্টিমিটারের সাহায্যে অথবা কন্টিনিটি টেস্টারের সাহায্যে পরিক্ষা করে নিতে পারেন।

চিত্র: ২

fixing mic unit ‍stap 2

ইউনিট পরিক্ষা করার নিয়ম

ইউনিটের নেগেটিভ পজেটিভ প্রান্ত নেই। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে মার্ক করা থাকে (+ -) (লাল কালো) কিন্তু এটার কোন ভ্যালু নাই পরিচিতির সুবিধার্থে মার্ক করা থাকে। পরিক্ষা করার সময় নেগেটিভ পজেটিভের দরকার নাই। আপনি ইউনিটের কয়েলের দুই প্রান্তে কন্টিনিটি টেস্টার অথবা মিটার ধরলে একদম শর্ট দেখাবে, মিটারে ফুল রিডিং দিবে, তাহলে বুঝতে হবে কয়েল বা ইউনিট ঠিক আছে। আর যদি কোন রিডিং না দেয়, কন্টিনিটি টেস্টার কাজ না করে, তাহলে বুঝতে হবে কয়েল খারাপ। আগেই বলেছি মাইকের ইউনিট টেস্ট করার মত কিছুই নাই শুধু মাত্র কয়েল পরিক্ষা করতে হয়। কারণ বেশির ভাগ ক্ষেত্রেকয়েল কেটে যায়। মাল্টিমিটারের ব্যবহার জানতে এখানে ক্লিক করুন

চিত্র: ৩

fixing mic unit ‍stap 3

চতুর্থ ধাপ: মাইকের ইউনিট খোলার পর আপনি সেই ইউনিটের কয়েলটি ভালোভাবে কিছুক্ষণ দেখুন, কিভাবে লাগানো আছে দরকার হলে একটা ছবি তুলে নিন। তার আয়রন হিট করে সাবধানতার সাথে খুলে তুলে নিন। দিয়ে কয়েলটি নিয়ে নিকটস্ত ইলেকট্রনিক্স পাটর্স এর দোকানে গিয়ে একই মাপের কয়েল কিনে আনুন। কারণ বিভিন্ন ইউনিটের কয়েল বিভিন্ন মাপের হয়ে থাকে। বাজারে কয়েলের দাম ৫০-২০০ টাকার মধ্যে। কয়েলটি দোকানদার কে দিলে সেই মাপ মত কয়েল আপনাকে দিয়ে দিবে, তবে আপনিও মাপটা ঠিক সমান কি-না একটু দেখে নিবেন এবং দোকানেই মিটার দিয়ে পরিক্ষা করে নিবেন কারণ সাবধানতার মার নাই।

মাইকের ইউনিট লাগানোর নিয়ম

পঞ্চম ধাপ: নতুন কয়েলটি কিনে আনার পর আগের কয়েলটি যেভাবে ছিলো ঠিক সেই ভাবে বসিয়ে আয়রণ দিয়ে সাবধানতার সাথে ঝালাই করে দিতে হবে। ভালোভাবে ঝালাই করার আগে একবার ইউনিট লাগিয়ে দেখতে হবে ইউনিটের কয়েল ঠিক মত ভিড়ছে কি-না, দেখে নিতে হবে। ঠিক মত ভিড়ে গেলে বুঝতে হবে ঠিক আছে তখন লাগিয়ে দিতে হবে।

সবসময় নিজেই একটু টেকনিক করে কাজ করতে হবে। কয়েল ঝালাই করার সময় কয়েলের যে তার থাকে তা একটু  ঢিলা করে লাগাতে হবে যেন দরকার হলে কয়েলটি একটু এদিক-সেদিক নড়ানো যায়। একেবারে দুই পাশে টান করে লাগানো যাবেনা। তারপরে বাড়তি তারের মাথা কেটে দিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে কয়েল বা কয়েলের ঝালাই করা তার, যেন কোন মতে বডির সাথে ঠেকে শর্ট না হয়ে যায়।

চিত্র: সামমি ইউনিট নমুনা

fixing mic unit Sammi‍

ইউনিটের কয়েল লাগানো তেমন কোন জটিল কাজ না। একটু ভালোভাবে চিন্তা করে দেখুন। এই সামান্য কাজের জন্য মেকারকে আপনার হয়ত মাঝে মাঝে অনেক টাকা দিতে হয়। কিন্তু দেখুন আপনি কত সহজেই আপনার ইউনিটের কয়েল পরিবর্তন করে নিতে পারেন। এরপর আমরা বক্সের মাইকের কয়েল লাগানো শিখবো। ইউনিটের কয়েল নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকলে আমাকে কমেন্ট করতে ভূলবে না। আর সার্ভিসিং শেখার ইচ্ছা থাকলে নিয়মিত আমার ফেইসবুক পেইজ এবং ইউটিউব চ্যানেল ফলো করুন। আরো বিস্তারিত জানতে নিচে দেখুন।

Leave a Reply

error: Content is protected !!