ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং যন্ত্রপাতি

ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং যন্ত্রপাতি সমূহ পরিচিতি ও ব্যবহার

আজ আমরা জানবো ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং যন্ত্রপাতি, মেশিন পরিচিতি ও ব্যবহার সমূহ। কারণ ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং শিখতে হলে প্রাথমিক ভাবে এসব যন্ত্রপাতি সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে ও ব্যবহার জানতে হবে। তাই ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং এর ১ম আর্টিকেলে আমি আপনাদের জন্য ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং যন্ত্রপাতি, মেশিন পরিচিতি ও ব্যবহার নিয়ে লিখেছি। আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং এর কাজ প্যাকটিক্যালি শিখে থাকে। আবার কেউ বিভিন্ন বই পড়ে শিখে থাকে। তাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই আপনি যদি ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং শিখতে চান বা সার্ভিসিং শিখতে চান তাহলে আমার ব্লগ নিয়মিত ফলো করুন।

হাউজ ওয়ারিং এর যন্ত্রপাতি :

ঘর ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং করতে বা আপনাকে প্রফেশনাল ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং টেকনিশিয়ান হতে হলে নিচের টুলস্ যন্ত্রপাতি গুলো ক্রয় করে নিতে হবে। যেগুলোর বাজার দাম অতটা বেশি নয়। ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং টুলস্ বা যন্ত্রপাতি গুলোর সব মিলে ৫,০০০/- হাজার টাকার মধ্যে হয়ে যাবে। আর আপনি যদি ড্রিল ও গ্রানডিং মেশিন না ক্রয় করেন তাহলে ১,০০০/- হাজার টাকার মধ্যে হয়ে যাবে। তবে আমি যে যন্ত্র গুলোর কথা উল্লেখ করেছি এগুলোকে আপনার কাজে ইনভেস্ট মনে করে ক্রয় করতে পারেন এবং প্রফেশনাল ভাবে কারেন্ট মিস্ত্রি হিসাবে কাজ করতে পারেন।

ইলেকট্রিক মালামালের নাম জানুন

ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতির নাম :

হাউস ওয়্যারিং করার জন্য যেসকল ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতির নাম জানা প্রয়োজন সেগুলো নিচে ছবি সহকারে পরিচিতি ও ব্যবহার বিস্তারিত ভাবে বর্ণনা করা হয়েছে। আশা করছি বিষয় গুলো দেখলে প্রতিটা ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতির নাম ব্যবহার ও পরিচিত জেনে শিখে নিতে পারবেন।

ইলেকট্রিক ড্রিল মেশিন :

প্রথমেই আপনাদের যে যন্ত্রটির কথা বলতে চাই সেটা হলো ইলেকট্রিক ড্রিল মেশিন। ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং করতে হলে আপনাকে এই মেশিনটি ক্রয় করে নিতে হবে, যার বাজার মূল্য ১৫০০ থেকে ২০০০ হাজার টাকার মধ্যে হয়ে যাবে। ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং করতে আপনাকে মেশিনটি অনেক সাহায্য করবে। ইলেকট্রিক ড্রিল মেশিন এর মাধ্যমে আপনি সহজেই যেকোন দেওয়াল ও সব ধরণের কম্পোনেন্ট অনায়াসে ফুটো/ছেদ করে কাজ সহজেই যেকোন কাজ শেষ করতে পারবেন।

হাউজ ওয়ারিং ইলেকট্রিক ড্রিল মেশিন
ইলেকট্রিক ড্রিল মেশিন

ইলেকট্রিক গ্রান্ডিং মেশিন :

ঘর হাউজ ওয়ারিং করতে হলে বিভিন্ন কম্পোনমেন্ট কাটা-কাটির প্রয়োজন হয়ে থাকে। যেমন- গ্রান্ডিং মেশিন পাকা ঘরের দেওয়াল কাটার কাজে বেশি ব্যবহার করা হয় এছাড়াও বিভিন্ন কম্পোনেন্ট স্টিল বোর্ড রড ইত্যাদি কাটতে হলে ইলেকট্রিক গ্রান্ডিং মেশিন ক্রয় করে নিতে হবে। তাহলে ঘর ওয়্যারিং করার সময় যেকোন জিনিস কাটা কাটি করতে অনেক সোজা হয়ে যাবে। ইলেকট্রিক গ্রান্ডিং মেশিন এর বাজার দাম তেমন বেশি নয়। বাজার যাচাই করলে ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

হাউজ ওয়ারিং ইলেকট্রিক গ্রান্ডিং মেশিন
ইলেকট্রিক গ্রান্ডিং মেশিন

ইলেকট্রিক মিডিয়াম হাতুড়ি :

ঘর হাউজ ওয়ারিং করতে হলে সব সময় আপনাকে একটা মিডিয়াম হতুড়ি কাছে রাখতে হবে। হাতুড়ি কি, কি কাজে ব্যবহার করতে হয় হয়ত সবাই জানেন। ইলেকট্রিক কাজে বা ভাঙ্গা- ভাঙ্গির কাজে হাতুড়ি বেশি ব্যবহার করা হয়ে থাকে, দেওয়াল ছেদন এর কাজে এবং স্কু পেরেক দেওয়ালে পুতে দেওয়ার জন্য ও যেকোন কম্পোনেন্ট বাড়িয়ে সোজা-বাঁকা করার জন্য ইলেকট্রিক মিডিয়াম হাতুড়ি ব্যবহার করা হয়।

ইলেকট্রিক মিডিয়াম হাতুড়ি
মিডিয়াম হাতুড়ি

ইলেকট্রিক কাটিং রয়েল ছেনি :

ঘর হাউজ ওয়ারিং করার জন্য দুই ধরণের ছেনির ব্যবহার করা হয়ে থাকে তার মধ্যে একটা দেওয়াল কাটার জন্য অন্যটা হলো দেওয়াল ফুটো করার জন্য। আপনার কাজ যদি কম হয়ে থাকে তাহলে আপনি ড্রিল মেশিন না ক্রয় করে রয়েল ছেনির মাধ্যমেও দেওয়াল ছেদন বা ফুটো করে রয়েল প্লাগ দেওয়ালে প্রবেশ করিয়ে স্ক্রু দিয়ে যেকোন ইলেকট্রিক কম্পোনেন্ট আটকাতে পারেন। প্রফেশনাল টেকনিশিয়ান হতে হলে ড্রিল মেশিন ক্রয় করে কাজ করতে হবে।

হাউজ ওয়ারিং ইলেকট্রিক কাটিং রয়েল ছেনি
ওয়াল কাটিং রয়েল ছেনি

সিমেন্ট মিকচার কুন্নি :

ঘর হাউজ ওয়ারিং জন্য আপনার একটা সিমেন্ট কুন্নি থাকা প্রয়োজন। কারণ দেওয়ালে যেকোন স্থানে সিমেন্ট প্রয়োজন হতে পারে। সিমেন্ট লাগানোর কাজে সিমেন্ট কুন্নি ব্যবহার করতে হয়। সাধারণত সিমেন্ট কুন্নি রাজ মিস্ত্রর কাছে থাকে কিন্তু আপনি যখন দেওয়াল কাটারপর ঘরে পাইপ জ্যাম দিবেন তখন সিমেন্ট দিয়ে সিমেন্ট আটাকানের প্রয়োজন হয়। এজন্য একটা মিডিয়াম সিমেন্ট কুন্নি ১০০-১৫০ টাকার মধ্যে কিনে নিতে হবে।

সিমেন্ট মিকচার কুন্নি
সিমেন্ট মিকচার কুন্নি

ইলেকট্রিক কারেন্ট টেস্টার :

কারেন্ট জনিত যেকোন কাজের জন্য একটা ইলেকট্রিক কারেন্ট টেস্টার কত যে প্রয়োজন একজন টেকনেশিয়ান তার গুরুত্ব সব থেকে বেশি বুঝে থাকে। তাই কারেন্ট জনিত যেকোন কাজ শুরুর আগে একটা এসি ইলেকট্রিক কারেন্ট টেস্টার ক্রয় করে নিতে হবে। দাম অত্যান্ত সীমিত ২০-৩০ টাকার মধ্যে বাজারে বিভিন্ন ধরণের ইলেকট্রিক কারেন্ট টেস্টার পেয়ে যাবেন।

বিদ্যুৎ কারেন্ট টেস্টার
বিদ্যুৎ বা কারেন্ট টেস্টার

ইলেকট্রিক স্ক্রু ড্রাইভার :

কারেন্ট বা যেকোন ধরণের ডিভাইস মেরামত করার জন্য বা খোলার জন্য স্ক্রু ড্রাইভার সেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই সম্ভব হলে পুরো স্ক্রু ড্রাইভার সেট ক্রয় করে নিবেন অথবা একটা স্টার স্ক্রু ড্রাইভার ও একটা মাইনাস স্ক্রু ড্রাইভার কিনে নিতে হবে। যেকোন ধরণের ইলেকট্রিক্যাল নাট খোলা বা লাগনোর কাজে স্ক্রু ড্রাইভার অনেক ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

ইলেকট্রিক স্ক্রু ড্রাইভার সেট
ইলেকট্রিক স্ক্রু ড্রাইভার সেট

ইলেকট্রিক সাধারণ প্লাস :

হাউজ ওয়ারিং বা যেকোন ধরণের মেরামতি কাজ করার জন্য আপনাকে একটা সাধারণ ইলেকট্রিক প্লাস কিনে রাখতে হবে। কারণ সাভিসিং ঘর হাউজ ওয়ারিং রিপেয়ারিং সব ধরণের কাজে সাধারণ একটা প্লাস প্রয়োজন হয়ে থাকে। প্রতিটা কাজ শুরু করার আগে আপনি প্লাস ও টেস্টার এর অভাব অনভব করবেন। প্লাস দিয়ে যেকোন কম্পোনেন্ট কাটা, লাগানো, খোলার কাজে হাজারও বার প্রয়োজন হয়।

সাধারণ ইলেকট্রিক প্লাস
সাধারণ ইলেকট্রিক প্লাস

ইলেকট্রিক কাটিং প্লাস :

হাউজ ওয়ারিং করার সময় তার বা ওয়্যার কাটার জন্য আপনি যদি চান তাহলে স্পেশাল কাটিং প্লাস রাখতে পারেন। তবে স্বাধারণ প্লাসেও কাটিং অংশ থাকে কিন্তু কাটিং প্লাসের মত সেটা কাজ করে না। তাই আপনি প্লাস সেটের সাথে একটা কাটিং প্লাস কিনে নিতে পারেন। যেকোন মেটাল ওয়্যার কাটার কাজে কাটিং প্লাসের ব্যবহার করতে পারবেন।

ইলেকট্রিক মেটাল কাটিং প্লাস
ইলেকট্রিক মেটাল কাটিং প্লাস

ইলেকট্রিক ওয়্যার কাটার :

হাউজ ওয়ারিং করার সময় বিভিন্ন ধরনের রাবার ওয়্যার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই জন্য ওয়্যার কাটার জন্য স্পেশাল প্লাস বাজারে এসে গিয়েছে। আপনি চাইলে শুধু মাত্র ইলেকট্রিক ওয়্যার কাটার জন্য উক্ত প্লাসটি ক্রয় করতে পারেন। ইলেকট্রিক ওয়্যার কাটারে আপনি যেকোন ধারণের তার নিশ্চিন্তে কাটতে পারবেন। এ ধরণের প্লাসে কপার কেটে যাওয়ার কোন সম্ভবনা নেই। এটাতে শুধু মাত্র ওয়্যারের উপরের আবরণ প্লাস্টিক কেটে যায়।

ওয়্যার কাটার কাটিং প্লাস
ওয়্যার কাটার কাটিং প্লাস

আজকের ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং যন্ত্রপাতি পরিচিতি সম্পর্কে আপনাদের ধারণা গুলো নিচে কমেন্ট করুন। এরপর আমরা ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং কম্পোনেন্ট গুলো সম্পর্কে জানবো তারপর ইলেকট্রিক হাউজ ওয়ারিং করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে একের পর এক আর্টিকেল পাবলিশ করতে থাকবো। উপরের বিষয় গুলো নিয়ে লেখা আপনাদের লেখাটি ভালো লেগে থাকলে লাইক ও শেয়ার করুন। আর কোন বিষয় সম্পর্কে জানতে চান নিজে কমেন্ট করুন।

কারেন্ট ভোল্টেজ সম্পর্কে জানুন

ইলেকট্রিক ফিউজ সম্পর্কে জানুন

2 Comments

  1. Saddam Hossain March 19, 2020
    • admin March 19, 2020

Leave a Reply

DMCA.com Protection Status