সিসিটিভি ক্যামেরা কি | সিসি ক্যামেরার দাম ইনস্টলেশন নিয়ম

সিসিটিভি ক্যামেরা বর্তমানে অফিস আদালত, বিভিন্ন ব্যাংক বিমা, রাস্তা ঘাট, দোকান বাড়ি ইত্যাদিতে নিরাপত্তার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে। সিসিটিভির মাধ্যমে বিভিন্ন দূর্ঘটনা, ছিনতাই, চুরি, সন্ত্রাসী কে সহজে সনাক্ত করা যায়। সিসি টিভি ক্যামেরা সব সময় তার সেট করা লোকেশনে ভিডিও ক্যাপ্চার করতে থাকে। CCTV অর্থ Close Circuit TV Camera এটা একটি ছোট সার্কিট ক্যামেরা, যার কাজ সবসময় ভিডিও ক্যাপ্চার করা। বর্তমানে বিভিন্ন দূর্ঘটনা নিরিক্ষণের জন্য CCTV এর ব্যবহার দিনে দিনে বহু গুনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই আজ আপনাদের সিসি টিভি ক্যামেরা সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়ি সিসি টিভি ক্যামোর পরিচিতি, দাম, সেটিং, ইনস্টলেশন নিয়ম সহকারে বিস্তারিত জেনে নি।

সূচীপত্র

সিসিটিভি ক্যামেরা কি ?   

CCTV অর্থ Close Circuit TV Camera। CCTV একটি ছোট সার্কিট ক্যামেরা, যার কাজ সবসময় ভিডিও ক্যাপ্চার করা। এক কথায় ছোট সার্কিট ক্যামেরাকে সিসি বা ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বলা হয়। সিসিটিভি ক্যামেরা প্রযুক্তি এর ব্যবহার আমাদের দেশে আট-দশ বছর আগে শুরু হলেও পশ্চিমা দেশ গুলোতে আরো অনেক আগে থেকেই ব্যবহার শুরু হয়েছে। দিনে দিনে সিসিটিভি ক্যামেরার ব্যবহার সুবিধা জনক কম দাম হওয়ার কারণে এর চাহিদা ও ব্যবহার অনেক গুনে বাড়ছে।

যদিও সিসি টিভি ক্যামেরা প্রযুক্তি আগে ছিল শুধু সাদা কালোর মধ্যে সীমাবদ্ধ। তখনকার সিসি ক্যামেরায় অল্প আলোতে পরিষ্কার ছবি দেখা যেত না। পরবর্তিতে রঙ্গিন সিসি ক্যামেরা বাজারে আসলেও স্বচ্ছ ছবির জন্য প্রচুর আলোর প্রয়োজনীয়তার কারণে ব্যবহার সীমিত হয়ে পড়েছিলো। বর্তমানে নানা ভাবে প্রযুক্তিগত উন্নয়ন এবং সিসি ক্যামেরার উন্নয়নের ফলে অনেক কম আলোতেই রঙ্গিন পরিষ্কার ছবি দেখতে পাওয়া যায়। এজন্য এখন আর সাদা-কালো সিসিটিভি ক্যামেরা আর ব্যবহার হয়না বরং রঙ্গিন সিসি ক্যামেরা ব্যবহার হয়।

সিসি টিভি ক্যামেরার ব্যবহার :

সিসিটিভি ক্যামেরা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিকিউরিটি জনিত কাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যেমন- অফিস আদালত, ব্যাংক বিমা, রাস্তা ঘাট, দোকান বাড়ি ইত্যাদি নিরাপত্তার জন্য। যেকোন দূর্ঘটন কে সহজেই পূর্ণ নিরিক্ষণ করা যায় সিসি টিভি ক্যামেরার মাধ্যমে। তাই আপনার বাড়িতে, অফিসে, দোকানে বিভিন্ন নিরাপাত্তার জন্য সিসিটিভি ক্যামেরা ব্যবহার করেত পারেন। সিসিটিভি ক্যামেরা আপনার হয়ে আপনার প্রতিষ্ঠানকে সব সময় পর্যবেক্ষণ করবে এবং তার ভিডিও ক্যাপ্চার করবে। যেমন- কোন সমস্যা হলে তা আপনি পরবর্তীতে দেখে তার সমাধান করতে পারবেন।

সিসিটিভি ক্যামেরা বিভিন্ন অংশ পরিচিতি :

ডিভিআর (DVR)- Digital Video Recorder

Digital Video Recorder দুই ধরণের হয়ে থাকে যেমন- TV Based- CCTV Monitoring Systems এবং PC Based- CCTV Monitoring Systems। DVR এর কাজ হলো ক্যামেরার সাথে সংযুক্ত সকল সিস্টেম কে এক সাথে করে নিয়ন্ত্রন করা। প্রতিটা ডিভিআর এ ৪, ৮, ১৬, ৩২, ৬৪ ক্যামেরার কানেকশন হয়ে থাকে। সিসিটিভি ক্যামেরার সকল যন্ত্র যেমন- Harddisk, Mouse, Camera, Power Supply, Monitor/TV ইত্যাদি সহ রেকর্ডিং এবং কন্ট্রোল করা DVR এর কাজ।

ডিভিআর সাথে সিসিটিভি ক্যামেরা কানেকশন ডায়াগ্রাম

হার্ডডিক্স (DVR –Hard disk) :

ডিভিআর এর মধ্যে ক্যাপ্চার করা ভিডিও সংরক্ষণের জন্য একটা হার্ডডিক্স বা ড্রাইভ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এটা যত বেশি জিবি হবে তত বেশি ভিডিও সংরক্ষিত হবে। Harddisk ডিভিআর এর ভিতরে লাগানো থাকে। আপনার প্রয়োজন মত ভিডিও ক্যাপ্চার করে, ক্যাপ্চার মেমোরি যত প্রয়োজন ততো জিবি Hard disk ডিভিআর এ সেট করে নিতে হবে।

সিসিটিভি ক্যামেরা হার্ডডিক্স

মাউস/রিমোট (DVR- Mouse/Remote) :

ডিভিআরের সাথে ফাংশন বা সিস্টেম পরিচালনার জন্য কম্পিউটারের মত একটা মাউস দেওয়া থাকে। তবে বর্তমানে বেশির ভাগ ডিভিআরে রিমোট সিস্টেম ব্যবহার করা হয়। রিমোট বা মাউসের মাধ্যমে আপনি কম্পিউটারের মত ডিভিআর এর ক্যামেরার প্রতিটা ফাংশন নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। নিচে মাউসের চিত্র দেওয়া হয়েছে।

সিসিটিভি ক্যামেরা মাউস

সিসিটিভি ক্যামেরা (CCTV Camera) :

CCTV ক্যামেরা ডিভিআরের সাথে কানেক্টর দিয়ে কানেক্ট করে দিলে ভিডিও ক্যাপ্চার হয়ে ডিভিআরে এর হার্ডডিস্ক এ সংরক্ষিত হবে। CCTV র কাজ হলো ভিডিও ক্যাপ্চার করা নিচে সিসিটিভি ক্যামেরার ছবি দেওয়া হলো।

সিসিটিভি ক্যামেরা

সিসি পাওয়ার কানেক্টর (Power Connector) :

Power কানেক্টরের মাধ্যমে ডিসি পাওয়া সাপ্লাইয়ের সাথে ক্যামেরার পাওয়ার লাইন দেওয়ার জন্য এধরণের ডিসি পাওয়ার কানেক্টর ব্যবহার করা হয়। নিচের চিত্রে পাওয়ার কানেক্টর দেওয়া হলো। প্রতিটা ক্যামেরাতে এধরনের আলাদা আলাদ পাওয়ার কানেক্টর  থাকে।

সিসিটিভি পাওয়ার কানেক্টর

সিসি ক্যামেরা কানেক্টর (Camera Connector) :

প্রতিটা ক্যামেরায় ডিভিআর এর সাথে সংযোগ দেওয়ার জন্য এধরণে DMC ভিডিও কানেক্টর ব্যবহার করা হয়, যাকে সিসি ক্যামেরা কানেক্টর (DMC) বলা হয়। যার মাধ্যমে ডিভিআর এর সাথে ক্যামেরা গুলো সংযোগ করা হয়ে থাকে। প্রতিটা ক্যামেরাতে এধরনের আলাদা আলাদ কানেক্টর থাকে।

সিসিটিভি ভিডিও ক্যামেরা কানেক্টর

ক্যামেরার তার (3+1 Wires) :

সিসিভিডি ক্যামেরার জন্য আলাদ 3+1 Wires তার পাওয়া যায়। যার মধ্যে একটা আলাদা ডাবল কোর তার থাকে, সেটাতে ক্যামেরা কানেকশন কানেক্টর লাগাতে হবে এবং লাল এবং সবুজ তারে ডিসি পাওয়ার কানেকশন করতে হবে। বাকি সাদা তারটা প্রয়োজন হলে অডিও কানেকশন হিসাবে ব্যবহার করতে হবে।

সিসিটিভি ভিডিও ক্যামেরার তার

ভিডিও ডিসপ্লে পোর্ট (HDMI/VGA) :

HDMI/VGA হলো মনিটর বা কম্পিউটারের সাথে লাগাতে হয় ভিডিও ডিসপ্লে আউটপুট পোর্ট। HDMI/VGA লাইন দিলে আপনি সরাসরি ভিডিও আপনার মনিটর স্ক্রিনে ব্যবহার করতে পারবেন। ভিজিএর মাধ্যমে সিসি ক্যামেরার আউটপুট বা প্লেব্যাক দেখা হয়। চিত্রে ভিজিএর এর ছবি দেওয়া হলো:

সিসিটিভি ভিডিও ডিসপ্লে পোর্ট

ক্যামেরা পাওয়ার সাপ্লাই (Power Supply) :

সিসিটিভির ক্যামেরা গুলোকে চালু রাখার জন্য আলাদা ভাবে পাওয়ার সাপ্লাইয়ের ব্যবহার করা হয়। একটা পাওয়ার সাপ্লায়ে আপনি একাধিক ক্যামেরা ব্যবহার করতে পারবেন। আপনার সিসি টিভি ক্যামেরার জন্য এমনই একটি পাওয়ার সাপ্লাই দেওয়া হবে। যার সাথে ক্যামেরার পাওয়ার কানেকশন দিয়ে চালু রাখতে হবে।

সিসিটিভি ক্যামেরা পাওয়ার সাপ্লাই

টিভি মানিটার (Monitor/TV) :

মনিটরের কাজ কি হয়ত সবাই জানেন। মনিটরের কাজ হলো দেখানো, তবে আপনি যদি শুধু ভিডিও রের্কডিং করতে চান তাহলে মনিটর ব্যবহার না করলেও চলবে, প্লেব্যাক এবং লাইভ দেখার জন্য মনিটর লাগবে। মনিটরে একসাথে অনেক ক্যামেরার ভিডিও লাইভ দেখা যায়। সরাসরি পর্যাবেক্ষণের জন্য মনিটর ব্যবহার করা প্রয়োজন।

সিসিটিভি আউটপুট মানিটার

সিসিটিভি ক্যামেরা কত প্রকার :

বর্তমানে সারা বিশ্বে বা স্থানীয় মার্কেটে 15-20 রকমের সিসি ক্যামেরা পাওয়া যায়। যেমন- সাধারন সিসি ক্যামেরা, ডোম ক্যামেরা, হিডেন ক্যামেরা, স্পাই ক্যামেরা, মিনি ক্যামেরা, স্পীড ডোম পিটিজেড ক্যামেরা, ড্রোন ক্যামেরা, ডে-নাইট ক্যামেরা, জুম ক্যামেরা, ভেন্ডাল প্রুফ ক্যামেরা, অ্যারে সিসি ক্যামেরা, বুলেট ক্যামেরা, আই পি ক্যামেরা, পেন ক্যামেরা, বোতাম ক্যামেরা এবং বিভিন্ন ধরণের ওয়াইফাই ক্যামেরা ইত্যাদি। বর্তমানে ব্যবহারের ভিন্নতার কারণে রঙ্গিন সিসিটিভি ক্যামেরা বিভিন্ন প্রকারের হয়ে থাকে। তবে সবার চাহিদা অনুযায়ী চার ধরনের সিসিটিভি ক্যামেরা বাজারে পাওয়া যায় এবং সবাই ব্যবহার করে, যেগুলো হলো :

ডোম সিসি ক্যামেরা (Dome Camera) :

Dome ক্যামেরা সাধারণত ঘরের সিলিং এর কোনে ব্যবহার করা হয়। Dome ক্যামেরা এক জায়গা থেকে তার পিকজেল অনুযায়ী ভিডিও ক্যাপ্চার করতে পারে। ডোম সিসি ক্যামেরার সাথে অটো এলইডি লাইট থাকার কারণে অন্ধকারে ভিডিও ক্যাপ্চার করতে পারে।

ডোম সিসি ক্যামেরা

ব্লুলেট সিসি ক্যামেরা (Bullet Camera) :

Bullet সিসি ক্যামেরা আপনি বাড়ির বাইরে যেকোন জায়গাতে লাগতে পারেন। Bullet সিসি ক্যামেরা ওয়েদারপ্ররুফ হওয়ার কারণে যে কোন আবহাওয়াতে সেট হয়ে যায়। ঝড় বৃষ্টিতে কোন সমস্যা হয়না। Bullet সিসি ক্যামেরা রাস্তা বা ছাদে দেওয়ালে, পিলারে ইত্যাদিতে ব্যবহার করতে পারেন।

ব্লুলেট সিসি ক্যামেরা

অ্যারে সিসি ক্যামেরা (Array Camera) :

Array সিসি ক্যামেরা হলো দূরে ভিডিও ক্যাপ্চার করার জন্য ব্যবহার করা হয়। নির্দিষ্ট দূরুত্বে ভিডিও করার জন্য Array সিসি ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়। এগুলো বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে, টাওয়ারে, ছাদে ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ব্যবহার করা হয়।

অ্যারে সিসিটিভি ক্যামেরা

ওয়াইফাই সিসি ক্যামেরা (Wi-Fi Camera) :

Wi-Fi সিসি ক্যামেরা হলো প্রোটেবল ক্যামেরা, আপনি যেকোন স্থানে সেট করতে, নিয়ে যেত পারবেন। সহজেই মোবাইলের মাধ্যমে পৃথিবীর যেকোন জায়াগা থেকে আপনি লাইভ ভিডিও দেখতে পারেন। মনে করুন আপনার গাড়িতে একটি Wi-Fi সিসি ক্যামেরা লাগিয়ে দিলেন। তারপর যেকোন জায়াগা থেকে আপনার সিসি ক্যামেরার ভিডিও মোবাইলে লাইভ দেখতে পারবেন। এজন্য বর্তমানে Wi-Fi সিসি ক্যামেরার ব্যবহার অনেক বাড়ছে। আপনি যদি মনে করেন আপনার ডিভিআর এ Wi-Fi কানেক্ট করবেন, তাহলে ডিভিআর কেনার আগে শপ কিপারের কাছে জেনে নিবেন Wi-Fi কানেক্ট হবে কি-না। যদি কানেক্ট হয় তাহলে তাহলে তাদের অ্যাপের মাধ্যমে মোবাইলে ভিডিও কাভারেজ দেখতে পারবেন।

ওয়াইফাই সিসিটিভি ক্যামেরা

বাংলাদেশে সিসিটিভি ক্যামেরার দাম :

আমি আপনাদের জন্য বাংলাদেশে কম দামে ভালো টেকশই সিসি গুলো মধ্যে থেকে বেছে HIKvision CCTV Camera নিয়ে এসেছি। যা অনেকই ব্যবহার করছে এবং অনেক দিন ব্যবহার করছে বর্তমানের সবচেয়ে ভালো মানের সিসি ক্যামেরা গুলোর মধ্যে HIKvision CCTV Camera অন্যতম। HIKvision CCTV এর মধ্যে থেকে তিনটা ক্যামের সেট সম্পর্কে আপনাদের কিছুটা ধারণা দিয়ে রাখি। বিস্তারিত জানার প্রয়োজন পড়তে নিচের লিংক বাটনে ক্লিক করে জেনে নিতে এবং কিনতে পারবেন।

HIK-Vision CCTV Camera 2 Channel

2 সিসিটিভি ক্যামেরা সাথে ডিভিআর সেট
  • HIKvision CCTV Camera 2 Channel with DVR, 1TB HDD 15,000/-
  • HD Quality Video
  • Night Vision Video
  • 24×7 Video Recording
  • 30 days Video Backup
  • Long distance Coverage
  • Secure Your House
  • 1 Year Warranty
সিসিটিভি ক্যামেরা কি

HIK-Vision CCTV Camera 4 Channel

4 সিসিটিভি ক্যামেরা সাথে ডিভিআর সেট
  • HIKvision CCTV Camera 4 Channel with DVR, 1TB HDD 21,000/-
  • Genuine HIKvision 4 Channel CCTV
  • Comes with 4 Channel DVR, 4 Camera, 1TB HDD
  • HD Quality Video
  • Night Vision Video
  • 24×7 Video Recording
  • 30 days Video Backup
  • 1 Year Warranty
সিসিটিভি ক্যামেরা কাকে

HIK-Vision CCTV Camera 8 Channel

8 সিসিটিভি ক্যামেরা সাথে ডিভিআর সেট
  • Hikvision 8 Channel HD CCTV Camera with 1TB HDD 36,500/-
  • HD Quality Video
  • Night Vision Video
  • 24×7 Video Recording
  • 30 days Video Backup
  • Long distance Coverage
  • Secure Your House
  • 1-year Warranty
সিসিটিভি ক্যামেরা ব্যবহার

সিসিটিভি ক্যামেরা ইনস্টলেশন :

সিসিটিভি ক্যামেরা ইনস্টলেশন করা তেমন একটা জটিল কাজ নয়। আপনি যদি উপরের সিসিটিভির বিভিন্ন অংশ পরিচিতি- পড়ে থাকেন, তাহলে সিসিটিভি ক্যামেরা ইনস্টলেশন করা আপনার কাছে কোন ব্যাপার হবেনা। কারণ আমি প্রতিটা অংশের কাজ ও পরিচিতি বিস্তারিত ভাবে বর্ণনা করেছি এবং কোথায় কি লাগতে হবে কিভাবে লাগতে হবে তার নাম কি তাও বিস্তাতির ভাবে বুঝানোর চেষ্টা করেছি। আপনি যদি আরো ভালোভাবে ভিডিও দেখে শিখতে চান তাহলে নিচের ভিডিও টি আপনার জন্য।

CCTV CAMERA INSTALLATION VIDEO

ওয়াইফাই সিসি ক্যামেরা কি :

Wi-Fi সিসি ক্যামেরা হলো নেটওয়ার্কি ক্যামেরা। যা Wi-Fi এর মাধ্যমে কানেক্ট করে মোবাইলে যেকোন স্থান থেকে লাইভ সিসি কাভারেজ দেখতে পারবেন। প্রয়োজন হলে ক্যামেরার সামনে থাকা মানুষের সাথে কথা বলতে পারবেন। মর্ডান টেকনোলজির এটা অন্যতম আবিস্কার। Wi-Fi সিসি প্রযুক্তি দিনে দিনে আরো আপডেট হতে চলেছে।

সিসি অ্যাপে ক্যামেরা লাইভ দেখার নিয়ম :

Wi-Fi সিসি ক্যামেরা মোবাইলের সাথে কানেক্ট করতে হলে যে কোম্পানির ক্যামেরা তার অ্যাপস্ গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করতে হবে। তারপর সেখানে আপনার এবং ক্যামেরার ইনফরমেশন দিয়ে অ্যাকাউন্ট করতে হবে। দিয়ে সিসি ক্যামেরা মোবাইলে যেকোন জায়গা থেকে কানেক্ট করতে পারবেন। এবং ভিডিও লাইভ কাভারেজ দেখতে পারবেন।

ডিভিআর ওয়াইফাই মোবাইল কানেক্ট পদ্ধতি :

আপনি যদি মনে করেন আপনার ডিভিআর কে Wi-Fi কানেক্ট করে যেকোন জায়গা থেকে মোবাইলে লাইভ কাভারেজ দেখবেন তাহলে ডিভিআর কেনার সময় আপনাকে শপ কিপারের কাছে থেকে জেনে নিতে হবে যে ডিভিআরে Wi-Fi কানেক্ট সিস্টেম আছে কি-না। যদি Wi-Fi কানেক্ট সিস্টেম থাকে তাহলে কিনতে হবে। আর আপনাকে আনলিমিটে নেট কানেকশন সহ Wi-Fi ডিভিআরের সাথে কানেক্ট করতে হবে। নিচের সিস্টেমে যেমন-

  1. Connect DVR With Wi-Fi.
  2. Download DVR Company Mobile App from Google Play Store.
  3. Create an account in DVR App.
  4. Next Live CCTV Coverage Video Watch.
  5. And control CCTV System on Mobile

সাধারণ সিসি ক্যামেরা- ওয়াইফাই ক্যামেরা :

সিসিটিভি ক্যামেরা এবং Wi-Fi সিসি ক্যামেরার মধ্যে পার্থক্য হলো- সাধারণ সিসি ক্যামেরা একই জায়গা বা স্থানে লাগানো থাকে যা ফিক্সড থাকে । আর Wi-Fi সিসি ক্যামেরা পোর্টেবল যেখানে সেখানে রাখা যায়, নিয়ে যাওয়া যায়, খুব সহজেই ব্যবহার করা যায়। একই স্থানে থাকলেও মোবাইলে ভিডিও কাভারেজ দেখা যায়। ডিভিআর সহ আরো অনেক কিছুর প্রয়োজন পড়ে না। সরাসরি মোবাইলে অ্যাপের মাধ্যমে কানেক্ট করে লাইভ কাভারেজ দেখা যায় এবং মোবাইলের মাধ্যমে ক্যামেরা মুভমেন্ট, ফাংশন ইত্যাদি নিয়ন্ত্রণ করা যায়। ফলে এর চাহিদা অনেক ।

পরিশেষে বলা যায়- সিসিটিভি ক্যামেরা সম্পর্কে পরিপূর্ণ ভাবে আজ আপনাদের জানানোর চেষ্টা করেছি। যদি কোন নতুন কিছু আপনাদের জানার প্রয়োজন হয়। তাহলে নিচে আমাকে কমেন্ট করুন। পরবর্তীতে সে বিষয়ে আপনাদের জন্য পরিপূর্ণ একটা আর্টিকেল নিয়ে আসবো। সিসি টিভি ক্যামেরা নিয়ে লিখাটি ভালো লাগলে লাইক, কমেন্ট, শেয়ার করুন।

Leave a Reply

error: Content is protected !!