মনিটরের স্ক্রিন নীল হয়ে চালু হয় না

মনিটরের স্ক্রিন নীল হয়ে চালু হয় না? ব্লু-স্ক্রিন ঠিক করার নিয়ম

মনিটরের স্ক্রিন নীল হয়ে চালু হয় না? ব্লু-স্ক্রিন কিভাবে ঠিক করবেন জেনেনিন। কারণ যেকোন সময় আপনার কম্পিউটারে ব্লু-স্ক্রিন সমস্যা হতে পারে। ব্লু স্ক্রিন সমস্যা হলে সহজেই যেন ঠিক করে নিতে পারেন। কম্পিউটারের ব্লু স্ক্রিন সমস্যা সাধারণত হার্ডওয়্যার ও সফট্ওয়্যার জনিত দুইটা কারণেই হয়ে থাকে। তাহলে চলুন হার্ডওয়্যারের কি সমস্যা হলে এবং সফট্ওয়্যারের কি সমস্যা হলে ব্লু স্ক্রিন ডেথ সমস্যা হয় জেনেনি।

হার্ডওয়্যার ও সফট্ওয়্যার

প্রতিটা কম্পিউটারকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়। যথা- হার্ডওয়্যার ও সফট্ওয়্যার। হার্ডওয়্যার হলো সে সকল ডিভাইস যা আমরা পিসি খোলার পর দেখতে পাই। যেমন- মনিটর, মাদাবোর্ড, র‌্যাম, রম, হার্ডডিস্ক ইত্যাদি। আর সফট্ওয়্যার হলো হার্ডওয়্যারকে চালানোর জন্য যেসকল প্রোগ্রাম ব্যবহার করা হয় যা অদৃশ্য বিষয় বলা যায়। কারণ কম্পিউটার ভেঙ্গে ফেললেও দেখতে পাবেন না। শুধুমাত্র কার্যপ্রনালী মনিটরে দেখতে পাবেন। যেমন- উইন্ডেজ অপারেটিং সিস্টেম, অফিস প্রোগ্রাম, অ্যাডবি প্রোগ্রাম ইত্যাদি।

ব্লু-স্ক্রিন হলে করণীয়

আপনার কম্পিউটারে ব্লু-স্ক্রিন হলে খুব সহজে কয়েকটা উপায়ে ঠিক করে নিতে পারেন। এজন্য প্রথমে আপনাকে কম্পিউটারের সমস্যা খুঁজে বের করতে হবে। তারপর নিচের দেওয়া পদ্ধতিতে পরীক্ষা করে ঠিক করতে হবে।

উইন্ডোজ

প্রথমত কম্পিউটারে উইন্ডোজ ইন্সটলেশনে সমস্যা হতে পারে। যেমন- উইন্ডোজ ঠিক ভাবে বুট করছে না, এক্ষেত্রে পুনরায় কম্পিউটার রিস্টার্ট করে দেখতে হবে। দরকার হলো নতুন ভাবে আবার উইন্ডোজ দিয়ে দেখতে হবে। অনেক সময় দেখা যায় হার্ডডিক্স সমস্যার জন্য বা বেশি পুরাতন হার্ডডিস্ক হলেও উইন্ডোজ ঠিক মত বুট করে না।

র‌্যাম মেমরি

পিসির র‌্যাম স্লটে সমস্যা হতে পারে। র‌্যামটি খুলে আবার লাগাতে হবে অথবা র‌্যাম স্লট পরিবর্তন করে র‌্যাম লাগিয়ে দেখতে হবে। প্রয়োজন হলে অন্য আরেকটি র‌্যাম দিয়ে পরীক্ষা করতে হবে। কারণ ডিসপ্লে জনিত বেশির ভাগ সমস্যা র‌্যাম থেকে হয়ে থাকে। সুতরাং ডিসপ্লে জনিত যেকোন সমস্যা হলে প্রথমে র‌্যামটি পরীক্ষা করে দেখতে হবে।

হার্ডডিস্ক

পিসির ভিতরে হার্ডডিস্ক কানেক্টর কেবল সমস্যা হতে পারে। যেমন- লুজ কানেক্ট, কেবল খারাপ, কানেক্টর খারাপ ইত্যাদি। আবার হার্ডডিস্কের ব্যাড সেক্টর এর কারণে হতে পারে। হার্ডডিস্কের ব্যাড সেক্টর সমস্যার সমাধান করতে হবে। হার্ডডিস্ক ফরম্যাট বা পার্টিশন ক্রিয়েট করে ব্যাড সেক্টর রিমুভ করা যায়। অথবা ব্যাড সেক্টর রিমূভ করার জন্য ইউটিউবে অনেক ভিডিও পাবেন সেগুলো ট্রায় করে দেখতে পারেন।

ভাইরাস

কম্পিউটারে ভাইরাস এট্যাকের ব্লু-স্ক্রিন সমস্যা কারণে হতে পারে। ইন্টারনেট থেকে কোন ফ্রি সফট্ওয়্যার ডাউনলোড করে সেটআপ করলে উইন্ডোজ ক্রাপ্ট হতে পারে। যেমন- ভাইরাস এ্যাটাক করে আপনার সিস্টেম উইন্ডোজ ফাইল নষ্ট করে দিতে পারে। এক্ষেত্রে এন্ট্রিভাইরাস দিয়ে কাজ না হলে নতুন ভাবে উইন্ডোজ সেট আপ দিয়ে কম্পিউটার চালু করতে হবে।

হার্ডওয়্যার

অনেক সময় দেখা যায় হার্ডওয়্যারের ভিজিএ বা গ্রাফিক্স জনিত সমস্যা হলে মনিটরের স্ক্রিন নীল হতে পারে, সম্ভব হলে পরিক্ষা করে দেখতে হবে। আর ব্লু স্ক্রিন সমস্যা যদি আপনি ঠিক করতে ব্যর্থ হন তহলে নিকটের কোন সার্ভিস সেন্টারে দক্ষ কম্পিউটার টেকনিশিয়ান কে দিয়ে ব্লু স্ক্রিন সমস্যার সমাধান করতে হবে।

কম্পিউটার সার্ভিসিং শিখুন

4 Comments

  1. মামুন আলী August 17, 2020
    • admin August 17, 2020
  2. জ্ঞান পিপাশু August 17, 2020
    • admin August 17, 2020

Leave a Reply

DMCA.com Protection Status
error: Content is protected !!